(দিনাজপুর২৪.কম) বিশ্বে নারীর অধিকার প্রতিষ্ঠায় আন্দোলনরত বিশ্বের সাত জন নারী অধিকার কর্মীর সাক্ষাৎকারের ভিত্তিতে প্রণীত নাটক ‘সাত’ দিনাজপুর নাট্য সমিতি গৃহে মঞ্চস্থ করা হয়েছে। মূলত সাতটি দেশের সাত জন নারীর সাতটি গল্প যুক্ত করে মঞ্চস্থ হয় এই নারীর অধিকার বিষয়ক নাটক ‘সাত’।
৩১ মে মঙ্গলবার রাতে আমরাই পারি পারিবারিক নির্যাতন প্রতিরোধ জোট ও পল্লীশ্রীর উদ্যোগে এবং ইউএন উইমেনের সহায়তায় নারীর বিরুদ্ধে নির্যাতন বন্ধে বিশ্বের ৩২টি দেশে মঞ্চস্থ প্রামাণ্য নাটক ‘সাত’ প্রদর্শনীর আয়োজন করা হয়।
যেই সাতটি দেশের নারীদের গল্পে এই ‘সাত’ নাটক তারা হলেন, আফগানস্তান এর ফরিদা আজিজি, উত্তর আয়ারল্যান্ড এর ইমেজ ম্যাক কোরমাক, রশিয়ার মারিনা পিস প্লাকোভা, গোয়াতিমালা’র আনাবেলা ডি লিওন, পাকিস্তান এর কুখতার মাই, কম্বোডিয়া’র মু সোচুয়া ও নাইজেরিয়া’র হাফসাত এবিওলা।
আর বিশ্বজুড়ে আলোচিত এ নাটকে ওই সাত জনের চরিত্রে অভিনয় করেছেন দিনাজপুর জেলার সাত জন বিশিষ্ট ব্যক্তি এই প্রথম যারা কখনই নাট্যাভিনয় করেননি। তারা হলেন, সাংবাদিক কাশী কুমার দাশ ঝন্টু, উইকেন জেলা কমিটির সদস্য ও চেঞ্জমেকার ব্রতচারী নৃত্যের প্রশিক্ষক প্রিয়াংকা রায়, কাউন্সিলর শাহীন সুলতানা বিউটি, কৃষিবিদ প্রফেসর ড. সাইফুল হুদা, রাজবাটী মডেল সরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয়ের সহকারী শিক্ষক শাহনাজ পারভিন, জেলা মহিলা বিষয়ক অধিদপ্তরের ডে-কেয়ার অফিসার রেজভিন সারমিনাজ ইসলাম, জেলা মহিলা ও শিশু বিষয়ক কল্যাণ সমিতির সভাপতি শিখা ঘোষ।
পল্লীশ্রীর সমন্বয়কারী শাহনাজ পারভীন এর উপস্থাপনায় উক্ত অনুষ্ঠানে প্রধান অতিথি ছিলেন অতিরিক্ত জেলা প্রশাসক (রাজস্ব) মো. তৌফিক ইমাম, বিশেষ অতিথি ছিলেন অতিরিক্ত পুলিশ সুপার ইলতুৎ মিশ। এছাড়াও উপস্থিত ছিলেন নাট্য নিদের্শক শাহজাহান শাহ, সহযোগী নিদের্শক নয়ন বার্টেল, পল্লীশ্রী’র নির্বাহী পরিচালক শামীম আরা বেগম, ইউএন উইমেনের সমন্বয়কারী মাহাতাবুল হাকিম, আমরাই পারি পারিবারিক নির্যাতন প্রতিরোধ জোট এর জাতীয় সমন্বয়কারী জিনাত আরা হক, পল্লীশ্রী’র পক্ষ থেকে সুরাইয়া আখতার প্রমুখ।