মো. নজরুল ইসলাম (দিনাজপুর২৪.কম) বিরামপুর উপজেলার জোতবানী গ্রামে এক মাদ্রাসা ছাত্রীকে জোর পূর্বক ধর্ষনের ঘটনায় পুলিশ অভিযান চালিয়ে ধর্ষক সবুজকে গ্রেফতার করে বুধবার (৩ জুলাই) দিনাজপুর কারাগারে পাঠিয়েছে।
বিরামপুর থানার মামলা সূত্রে প্রকাশ, উপজেলার জোতবানী গ্রামের সিরাজুল ইসলামের দ্বিতীয় পুত্র বখাটে সবুজ হোসেন (২২) প্রতিবেশী ৬ষ্ঠ শ্রেণির এক মাদ্রাসা ছাত্রীকে (১৩) উত্যক্ত করে আসছিল। গত সোমবার (১লা জুলাই) সকাল ১০টার দিকে ঐ ছাত্রী সবুজের বাড়ির পাশ দিয়ে যাওয়ার সময় সবুজ তাকে বাড়িতে ডেকে নেয়। সবুজের বাড়িকে কেউ না থাকার সুযোগে ছাত্রীকে জোর পূর্বক ধর্ষন করে। এদিকে দীর্ঘক্ষণ ছাত্রীকে দেখতে না পেয়ে তার মা খোঁজাখুঁজি কালে সবুজের বাড়ির পাশ দিয়ে যাওয়ার সময় গোঙ্গানীর শব্দ শুনে ঐ বাড়ি থেকে মেয়েকে উদ্ধার করেন। এঘটনায় মঙ্গলবার রাতে বিরামপুর থানায় সবুজের বিরুদ্ধে ধর্ষন মামলা হয়েছে।
বিরামপুর থানার ওসি মনিরুজ্জামান জানান, পুলিশ তাৎক্ষণিক অভিযান চালিয়ে ধর্ষক সবুজকে গ্রেফতার করেছে এবং ধর্ষিতার ডাক্তারি পরীক্ষার জন্য দিনাজপুর এম, আব্দুর রহিম মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে পাঠানো হয়েছে।