(দিনাজপুর২৪.কম)  গত শুক্রবার দিনাজপুর কে,বি,এম কলেজের ১বর্ষের ছাত্র সাজন ইসলাম ২০) এর ব্যাগে হেরোইন রেখে মুক্তিপণ চাওয়ার অপরাধে রবিউল ইসলাম (৩২) নামের একজন ভুয়া র‌্যাব সদস্যকে আটক করেছে বোচাগঞ্জ থানা পুলিশ। কলেজ ছাত্র সাজন ইসলামের দায়ের করা মামলায় আটক রবিউল ইসলামকে গতকাল শনিবার দিনাজপুর জেল হাজতে প্রেরণ করা হয়েছে। মামলা সুত্রে জানাগেছে, ঠাকুর গাও জেলার হরিপুর উপজেলার মাহাতের বস্তি গ্রামের মজিবর রহমানের পুত্র কলেজ ছাত্র সাজন শুক্রবার সকালে কলেজের মেসে যাওয়ার জন্য পীরগঞ্জ রেলষ্টেশন থেকে সেভেন আপ ট্রেনে চড়ে দিনাজপুর যাওয়ার পথে সেতাবগঞ্জ রেলষ্টেশনে বিস্কুট নেয়ার জন্য ট্রেন থেকে নেমে দোকানের দিকে যাওয়ার সময় রবিউল ইসলাম তাকে র‌্যাব পরিচয় দিয়ে ষ্টেশনের পূর্ব পাশে ফাকা জায়গায় নিয়ে য়ায়। এক পর্যায়ে রবিউল ইসলাম নিজেই কলেজ ছাত্র সাজনের ব্যাগে কাগজে মুরানো একটি হেরোইনের টোপলা রেখে কলেজ সাজনের কাছে থাকা নগদ ২২ হাজার টাকা ছিনিয়ে নেয় এবং সাজনের বাবাকে ফোন করে ৫লক্ষ কাটার মুক্তিপণ দাবী করে। সন্তানকে রক্ষায় সাজনের পিতা তাৎক্ষনিক রবিউল ইসলামের বোবাইলে ৫লক্ষ টাকা দেয়ার পরিবর্তে ১হাজার ৫শ টাকা প্রেরণ করায় রবিউল ইসলাম ক্ষিপ্ত হয়ে সেতাবগঞ্জ পৌর শহরের তাহের মোড়ে সাজনকে মালধর শুরু করে। সাজনের চিৎকার শুনে ঐ এলাকার কাউন্সিলর আবু তাহের সহ স্থানীয় জনতা ভুয়া র‌্যব সদস্য রবিউল ইসলামকে আটক করে পুলিশে সোপর্দ করে। আটক রবিউল ইসলামের কাছ থেকে র‌্যাব সদর দপ্তর, উত্তরা ঢাকার ইস্যুকৃত ০১-১০-২০১৪ সালের একটি পরিচয় পত্র উদ্ধার করেছে পুলিশ।