স্টাফ রিপোর্টার (দিনাজপুর২৪.কম) বাংলা নববর্ষ ১৪২৩ উদযাপন উপলক্ষ্যে দিনাজপুরে বর্ণাঢ্য আয়োজনের মধ্য দিয়ে জেলা প্রশাসনসহ বিভিন্ন সংগঠনের উদ্যোগে বাংলা নববর্ষ উদযাপন করেছে। ১৪ এপ্রিল পহেলা বৈশাখ বৃহস্পতিবার সকাল ৭টায় ষ্টেশন ক্লাব প্রাঙ্গণে দিনাজপুর জেলা প্রশাসন, ষ্টেশন ক্লাব ও লেডিস ক্লাবের আয়োজনে বর্ষবরণ অনুষ্ঠান ও পান্তাভাত ভোজন অনুষ্ঠিত হয়। উক্ত অনুষ্ঠানে বক্তব্য রাখেন জেলা প্রশাসক মীর খায়রুল আলম, সিনিয়র জেলা ও দায়রা জজ হোসেন শহীদ আহমদ, পুলিশ সুপার মোঃ রুহুল আমিন, জেলা পরিষদের প্রশাসক আজিজুল ইমাম চৌধুরী, ষ্টেশন ক্লাবের সাধারণ সম্পাদক আলহাজ¦ রেজা হুমায়ুন চৌধুরী শামীম, লেডিস ক্লাবের সভানেত্রী ও জেলা প্রশাসকের সহধর্মীনি মোছাঃ শামীমা আক্তার প্রমুখ। বর্ষবরণ অনুষ্ঠানে সাংস্কৃতিক অনুষ্ঠান পরিবেশন করে ষ্টেশন ক্লাব ও লেডিস ক্লাবের সদস্যবৃন্দ, ভৈরবী সাংস্কৃতিক গোষ্ঠী ও জেলা শিল্পকলা একাডেমীর শিল্পীবৃন্দ। উক্ত প্রতিষ্ঠানটি সঞ্চালনায় ছিলেন জেলা প্রশাসক কার্যালয়ের সরকারী কমিশনার তপতী বিশ^াস, মোঃ আখতার হোসেন শাহিন ও নাজমুন নাহার। সকাল ৯টায় কেন্দ্রীয় শহীদ মিনার হতে দিনাজপুর জেলা প্রশাসন ও বৈশাখী উৎসব পরিষদের আয়োজনে বর্ণাঢ্য মঙ্গল শোভাযাত্রা শহরের প্রধান প্রধান সড়ক প্রদক্ষিণ করে। শোভাযাত্রায় অংশ নেন জেলা প্রশাসক মীর খায়রুল আলম, পুলিশ সুপার মোঃ রুহুল আমিন, অতিরিক্ত জেলা প্রশাসক (সার্বিক) মোঃ আবু রায়হান মিঞা, অতিরিক্ত জেলা প্রশাসক (রাজস্ব) মোঃ তৌফিক ইমাম, অতিরিক্ত জেলা প্রশাসক (শিক্ষা ও আইসিটি) তৌহিদুল ইসলাম, অতিরিক্ত জেলা ম্যাজিষ্ট্রেট মোঃ গোলাম রাব্বী, সিভিল সার্জন ডাঃ অমলেন্দু বিশ্বাস, বৈশাখী উৎসব পরিষদের আহ্বায়ক সফিকুল হক ছুটু, সদস্য সচিব মোঃ আনোয়ারুল ইসলাম, দিনাজপুর২৪.কম  এর সম্পাদক ও SHED ফাউন্ডেশনের নির্বাহী পরিচালক ও চেয়ারম্যান এস.এন.আকাশ, জেলা আওয়ামী লীগের সহ-সভাপতি আলতাফুজ্জামান মিতা, যুব ও ক্রীড়া সম্পাদক মোঃ তৈয়ব উদ্দীন চৌধুরী, শহর আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক খালেকুজ্জামান রাজুসহ বিভিন্ন স্তরের গণ্যমান্য ব্যক্তিবর্গ। সকাল ১০টায় কেন্দ্রীয় শহীদ মিনার প্রাঙ্গণে বৈশাখী মেলার উদ্বোধন, আলোচনা সভা, সাংস্কৃতিক অনুষ্ঠান ও পুরস্কার বিতরণী অনুষ্ঠিত হয়। অপরদিকে দিনাজপুর সরকারী কলেজের জাতীয় দিবস উদযাপন ও সাংস্কৃতিক কমিটির আয়োজনে বাংলা নববর্ষ উপলক্ষ্যে সকাল ৯টায় কলেজ প্রাঙ্গণ হতে শিল্পকলা একাডেমী পর্যন্ত এবং উচ্চ মাধ্যমিক শাখা হতে কেন্দ্রীয় শহীদ মিনার হয়ে বর্ণাঢ্য শোভাযাত্রা শহরের প্রধান প্রধান সড়ক প্রদক্ষিণ করে। ১০ টায় সরকারী কলেজ মুক্তমঞ্চে আলোচনা সভা ও সাংস্কৃতিক অনুষ্ঠান পরিবেশিত হয়। উক্ত কর্মসূচীতে প্রধান অতিথি হিসাবে উপস্থিত ছিলেন অধ্যক্ষ প্রফেসর মোঃ আবু বকর সিদ্দিক, বিশেষ অতিথি উপাধ্যক্ষ প্রফেসর সৈয়দ মোহাম্মদ হোসেন, শিক্ষক পরিষদের সাধারণ সম্পাদক (ভারপ্রাপ্ত) মোঃ দাইমুল ইসলাম এবং উদযাপন কমিটির আহ্বায়ক আব্দুল জলিল আহমেদ। সার্বিক সহযোগিতায় ছিল নাট্য সাংস্কৃতিক ঐক্যজোট। দিনাজপুর কালেক্টরেট স্কুল এন্ড কলেজের অধ্যক্ষ মোঃ রাহিনুর ইসলামের নেতৃত্বে বাংলা নববর্ষ উপলক্ষ্যে শিক্ষক-শিক্ষার্থীরা শহরে বর্ণাঢ্য শোভাযাত্রা বের করে এবং মিশন রোডস্থ প্রতিষ্ঠান চত্ত্বরে পান্তাভাত ভোজন ও সাংস্কৃতিক অনুষ্ঠানের আয়োজন করে। পহেলা বৈশাখ উপলক্ষ্যে শহরের পশ্চিম পাটুয়াপাড়াস্থ নিজস্ব কার্যালয়ে প্রতিবারের নেয় এবারো নতুন প্রজন্ম সাহিত্য সংসদ’র উদ্যোগে পান্তাভাত ভোজন-আলোচনা সভা ও সাংস্কৃতিক অনুষ্ঠানের আয়োজন করা হয়। উক্ত কর্মসূচীতে অংশ নেন সংগঠনের উপদেষ্টা মোঃ ফেরদৌস আহমেদ, মোঃ আলতাফ হোসেন, সাধারণ সম্পাদক মামুনুর রহমান জুয়েল, সহ-সম্পাদক ফটো সাংবাদিক মোঃ ইউসুফ আলী, সদস্য যথাক্রমে সেতু, যোসেফ, মুক্তি, মিতু, মোঃ জুয়েল ইসলাম, রিতু, সুমি, বাবলা, সেমলী প্রমুখ। দিনাজপুর স্কলার্স ইন্টারন্যাশনাল স্কুল’র আয়োজনে পহেলা বৈশাখ উপলক্ষ্যে শহরে বর্ণাঢ্য শোভাযাত্রা ও প্রতিষ্ঠান চত্ত্বরে পান্তাভাত ভোজন এবং সাংস্কৃতিক অনুষ্ঠানের আয়োজন করে। উপস্থিত ছিলেন বিদ্যালয় পরিচালনা পর্ষদের সদস্য মোঃ মোসাদ্দেক হুসেন, গোলাম নবী দুলাল, পরিচালক (অর্থ) এসএএম জাহিদুল ইসলাম জাহিদ, অধ্যক্ষ মোঃ আমিনুল ইসলাম, বিদ্যালয়ের অন্যান্য শিক্ষক ও শিক্ষার্থীবৃন্দ। বাংলা নববর্ষ উপলক্ষ্যে রাজবাটিস্থ দিনাজপুর সরকারী শিশু পরিবারের শিশুদের মাঝে ও দিনাজপুর সদর হাসপাতালের রোগীদের মাঝে এবং দিনাজপুর জেলা কারাগার এর কয়েদিদের মাঝে স্ব স্ব কর্তৃপক্ষের তত্ত্বাবধানে উন্নতমানের ঐতিহ্যবাহী বাঙ্গালী খাবার পরিবেশন করে। বাংলা নববর্ষ উপলক্ষ্যে দিনাজপুর শহরের ঘাসিপাড়াস্থ হামিদুর রহমান পাঠাগারের উদ্যোগে প্রতিষ্ঠান চত্ত্বরে সদস্যরা বিভিন্ন কার্যক্রমের মধ্য দিয়ে নববর্ষ পালন করে। বিকাল ৩টায় দিনাজপুর বড় মাঠে ঘুড়ি উৎসব উদযাপন উপ-কমিটির আয়োজনে ঘুড়ি উৎসব প্রতিযোগিতা অনুষ্ঠানে উপস্থিত ছিলেন জেলা প্রশাসক মীর খায়রুল আলম, পুলিশ সুপার মোঃ রুহুল আমিন, বিশিষ্ট নাট্যজন কাজী বোরহান, মোঃ আবুল কালাম আজাদ, মোঃ শফিকুল ইসলাম প্রমুখ। বাংলা বর্ষবরণ উপলক্ষ্যে জেলা সরকারী গণগ্রন্থাগার রচনা প্রতিযোগিতা ও শিশু একাডেমী মিলনায়তনে চিত্রাঙ্কন-লোক সংগীত এবং লোক নৃত্য প্রতিযোগিতা অনুষ্ঠিত হয়। এ ছাড়াও দিনাজপুরের বিভিন্ন শিক্ষা প্রতিষ্ঠান, বিভিন্ন সামাজিক-সাংস্কৃতিক সংগঠন নিজ নিজ উদ্যোগে বর্ষবরণ অনুষ্ঠানের আয়োজন করে।