স্টাফ রিপোটার (দিনাজপুর২৪.কম) দিনাজপুরে কাল বৈশাখী ঝড়ে একজন সেবিকা ও বজ্রপাতে আরেকজনসহ দুজন নিহত হয়েছেন। আহত হয়েছেন আরো তিনজন। পৃথক ঘটনা দুটি ঘটেছে দিনাজপুরের পার্বতীপুর ও সদর উপজেলায়।

পার্বতীপুরে বুধবার সকাল সাড়ে ৯টায় কাল বৈশাখী ঝড়ের কবলে পড়ে ইতি রানী রায় নামে এক নার্সের (সেবিকা) মৃত্যৃ হয়। নিহত নার্স পার্বতীপুর উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্স হাসপাতালে কর্মরত ছিলেন। উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্স-এর আবাসিক মেডিকেল অফিসার (আরএমও) আলম মিয়া জানান, নিহত নার্স ইতি রানী রায় গ্রামের বাড়ি দুর্গাপুর থেকে তার স্বামীর মোটরসাইকেলযোগে কর্মস্থলে আসছিল। এসময় কালবৈশাখী ঝড় ও বৃষ্টিপাত শুরু হয়। তারা চান্দাপাড়া মোড়ে এসে পৌঁছলে রাস্তার পাশের একটি গাছের ডাল ইতিরানীর উপর ভেঙে পড়লে গুরুতর আহত হয়। সংজ্ঞাহীন অবস্থায় তাকে প্রথমে পার্বতীপুর উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্স হাসপাতালে নিয়ে আসা হয়, পরে রংপুর মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে নিয়ে যাওয়ার পথে তার মৃত্যু হয়। ওই দুর্ঘটনায় তার স্বামী মৃনাল কান্তি রায়ও আহত হন। এই নার্সের মৃত্যুতে হাসপাতালের কর্মচারী ও নিহতের গ্রামের বাড়িতে শোকের ছায়া নেমে এসেছে।

মঙ্গলবার রাত থেকে আকাশে কালো মেঘ, বুধবার সকালে রূপ নেয় কালবৈশাখীতে। ধীরে ধীরে ঝড়ের প্রভাব কমলেও বর্জ্যপাতের প্রভাব বাড়তে থাকে। এতে করে দিনাজপুর সদরের কসবায় বজ্রপাতে একজনের মৃত্যু হয়েছে। আহত হয়েছে- আরো দুজন।