(দিনাজপুর২৪.কম)  দিনাজপুরে রোববার রাতের প্রবল বর্ষণে গোটা শহর প্লাবিত হয়ে জনজীবন বিপর্যস্ত হয়ে পড়ে। সন্ধ্যা ৭টা থেকে রাত ১১টা পর্যন্ত টানা ৪ ঘন্টার প্রবল বর্ষনে শহরের প্রতিটি রাস্তা হাটু হতে কোমর পানিতে তলিয়ে যায়।  গত রোববার (৩০ আগষ্ট) দুপরের পর হতে সন্ধ্যা ৭ টা পর্যন্ত দিনাজপুর শহরসহ আশপাশের এলাকায় বিরতি দিয়ে কয়েক দফা বৃষ্টিপাত হয়। মাগরিব নামাজের পর সন্ধ্যা ৭টা থেকে প্রবল বর্ষণ শুরু হয়ে রাত ১১টায় শেষ হয়।  এক দিকে প্রবল বর্ষণ, অন্যদিকে বিদ্যুৎহীন গোটা শহর যেন একটি অন্ধকার শহরে পরিণত হয়। বিদ্যুৎ না থাকায় শহবৃষ্টির মধ্যে শহরের লোকজন দোকান পাট বন্ধ করে বাসা-বাড়ীতে চলে যায়। কিন্তু দোকান-পাট বন্ধ করে বাসায় যাওয়ার পথে লোকজনকে পড়তে হয় বিড়ম্বনায়। প্রবল বৃষ্টি উপেক্ষা করে লোকজন বাসাবাড়ীতে ছুটে যায়।
প্রবল বৃষ্টিতে শহরের লিলির মোড়, চাঊলিয়াপট্টি মোড়, বালুয়াডাঙ্গা বাসস্ট্যান্ড, মডার্ণ মোড়, সদর হাসপাতাল মোড়, ফুলবাড়ী বাসস্ট্যান্ডসহ শহরের প্রতিটি রাস্তা-ঘাট বৃষ্টির পানিতে তলিয়ে যায়। এসব রাস্তায় হাটু হতে কোমর পানি পর্যন্ত জমে যায়। নি¤œাঞ্চর তলিয়ে যায় বৃষ্টির পানিতে। অনেক বাসাবাড়ীতে পানি ঢুকে পড়ে ঘরের আসবাবপত্র ভিজে যায়। এতে রাতভর বিড়ম্বনার কাটাতে হয়েছে শহরবাসিকে। তবে রাতেই বৃষ্টির পানি সরে গেলেও এখনো শহরের নিম্নাচলে পানি জমে রয়েছে।
দিনাজপুর শহরের লিলির মোড়ের দোকানদার আজহারুল ইসলাম দুলু জানান, আমার জীবনে দিনাজপুর শহরে বৃষ্টির  পানিতে গোটা শহর তলিয়ে গেছে এমন অবস্থা দেখিনি। তিনি জানান, শুধু রাস্তা-ঘাট নয় প্রবল বর্ষণে শহরের অনেক এলাকায় পানির নীচে তলিয়ে গেছে। -মাহবুবুল হক খান