স্টাফ রিপোর্টার (দিনাজপুর২৪.কম) দিনাজপুরের বোচাগঞ্জে কথিত পীরসহ দুজন খুন হওয়ার ঘটনায় কুড়িগ্রাম থেকে এক ব্যক্তিকে আটক করা হয়েছে। মঙ্গলবার রাতে ওই ব্যক্তিকে আটক করা হয় বলে জানায় দিনাজপুরের পুলিশ। আটক হওয়া ব্যক্তির নাম ইসহাক আলী (৫৭)। তার বাড়ি কুড়িগ্রামের পাথরডুবি এলাকায়।

দিনাজপুরের পুলিশ সুপার মো. হামিদুল আলম দিনাজপুর২৪.কমকে বলেন, জোড়া খুনের ঘটনায় সন্দেহভাজন হিসেবে ইসহাককে আটক করা হয়েছে। জিজ্ঞাসাবাদের জন্য তাকে কুড়িগ্রাম থেকে দিনাজপুরে আনা হচ্ছে। বোচাগঞ্জের দৌলা গ্রামে গত সোমবার রাতে কাদরিয়া মোহাম্মদী দরবার শরীফে ঢুকে ফরহাদ হোসেন চৌধুরী (৬০) ও তার মুরিদ রূপালী বেগমকে (১৮) হত্যা করে দুর্বৃত্তরা। জোড়া খুনকে জঙ্গিগোষ্ঠীর কাজ বলে সন্দেহ করছে গ্রামবাসী। পুলিশ বলছে, তারা সম্ভাব্য সবকিছুই খতিয়ে দেখছে।

ফরহাদের খাদেম সাইদুর রহমান এবং দুই মুরিদ মো. সলিমুদ্দিন ও আয়শা বেগমের ভাষ্য, ফরহাদ ছিলেন হজরত আবদুল কাদের জিলানি রহ.-এর অনুসারী। কুড়িগ্রামের পাথরডুবি এলাকার পীর ইসহাক আলীর (গতকাল আটক) মাধ্যমে ফরহাদ এই তরিকায় আসেন। কয়েক বছর আগে দুজনের মধ্যে মতবিরোধ দেখা দেয়। আগে ইসহাক আলী নিয়মিত ফরহাদের দরবার শরীফে আসতেন। বিরোধের পর আর আসতেন না। এরপর ইসহাক আলী দৌলা গ্রামে এলে বাবু নামের এক ব্যক্তির বাড়িতে উঠতেন। তিনি ১০ থেকে ১২ দিন আগে এই গ্রামে এসেছিলেন।