(দিনাজপুর২৪.কম) আসন্ন রমজান মাস উপলক্ষে নিত্য প্রয়োজনীয় দ্রব্যাদির বাজার স্থিতিশীল রাখা এবং সরবরাহ নিশ্চিত করণের নিমিত্তে দিনাজপুর জেলা প্রশাসক সম্মেলন কক্ষে বিশেষ সভা অনুষ্ঠিত হয়েছে।  ১জুন বুধবার সকাল ১০টায় আয়োজিত বিশেষ সভায় সভাপতিত্ব করেন জেলা প্রশাসক মীর খায়রুল আলম। সভায় গত বছরের রেজুলেশন পাঠ করেন অতিরিক্ত জেলা প্রশাসক (সার্বিক) মোঃ আবু রায়হান মিঞা। মুক্ত আলোচনায় অংশ নেন পুলিশ সুপার মোঃ রুহুল আমিন, সিভিল সার্জন অমলেন্দু বিশ্বাস, সিনিয়র জেলা তথ্য অফিসার আবুল কালাম মোহাম্মদ শামসুদ্দিন, সদর উপজেলা নির্বাহী অফিসার মোঃ আব্দুর রহমান, চেম্বারের সিনিয়র সহ-সভাপতি মোঃ আনোয়ারুল ইসলাম, দৈনিক উত্তরার সম্পাদক অধ্যাপক মুহম্মদ মহসীন, দিনাজপুর পৌরসভার নির্বাহী প্রকৌশলী মোঃ ফজলুল হক, বিদ্যুৎ উন্নয়ন বোর্ডের সহকারী প্রকৌশলী পলাশ চন্দ্র দাস, ক্যাব জেলা শাখার সভাপতি শাহ-ই-মবিন জিন্নাহ, বাংলাদেশ রেস্তোরা মালিক সমিতি জেলা শাখার সভাপতি শ্যামল কুমার ঘোষ, জেলা কৃষক লীগের সাধারণ সম্পাদক মোঃ সাখাওয়াত হোসেন সরকার, সাবেক প্রধান শিক্ষক মোঃ শফিকুল ইসলাম, জেলা মার্কেটিং অফিসার মোঃ রবিউল হাসান, ৪২ বিজিবি’র প্রতিনিধি মোঃ সিরাজুল ইসলাম, ক্যাবের সেক্রেটারী মোঃ খয়রাত হোসেইন, নিউটাউন টেস্টি বেকারীর সত্ত্বাধিকারী মোঃ আইয়ুব আলী, কাঁচামাল আড়ৎদার মালিক সমিতির সভাপতি লিয়াকত আলী, সাধারণ সম্পাদক মোঃ রুবেল ইসলাম, বাহাদুর বাজার এনএ মার্কেট ব্যবসায়ী সমিতির সাধারণ সম্পাদক মোঃ ইকবাল, মাংস ব্যবসায়ী সমিতির সাধারণ সম্পাদক মোঃ মঞ্জুরুল আলম প্রমুখ। উক্ত বিশেষ সভায় জেলা প্রশাসক তার বক্তব্যে বলেন, পবিত্র রমজানের আগেই বাহাদুর বাজারে ব্যবসায়ীদের নিয়ে একটি উঠান বৈঠক করতে ব্যবসায়ীদের সহযোগিতা কামনা করেন। বাহাদুর বাজারে ডাস্টবিনের সংখ্যা বাড়িয়ে দিনের বেলা দু’বার পৌরসভার মাধ্যমে ময়লা পরিষ্কার করার জন্য তাগিদ দেন। জেলা প্রশাসক উপস্থিত সকল ব্যবসায়ীদের আসন্ন রমজান মাস উপলক্ষে খাদ্য সামগ্রীর বাজার মূল্য সহনশীল পর্যায়ে রাখা এবং সর্বসাধারনের নিকট সাশ্রয়ী মূল্যে পৌঁছাতে সকলের আন্তরিক সহযোগিতা কামনা করেন। বালুবাড়ী টিকিয়াপাড়ায় অবস্থিত পিলখানা মাঠটি সংস্কারের উপর গুরুত্বারোপ করেন। বাহাদুর বাজার রাস্তার উপর প্রতিদিন ময়লা-আবর্জনা দীর্ঘক্ষণ সময় পর্যন্ত ফেলে রাখতে দেখা যায়। বাজারে লোকজন আসার পূর্বেই পৌর কর্তৃপক্ষকে ময়লা-আবর্জনা সরিয়ে নেয়ার তাগিদ দেন। জেলা প্রশাসক বলেন পবিত্র রমজান মাস উপলক্ষে টিসিবি’র ডিলারদের মাধ্যমে শহরের দু’টি গুরুত্বপূর্ণ স্থানে ট্রাকে করে চিনি, সয়াবিন তেল, মশুর ডাল, ছোলা সাশ্রয়ী মূল্যে সর্বসাধারণের নিকট দেয়ার তাগিদ দেন। টিসিবি’র ভ্রাম্যমান ট্রাক সেল নিয়মিত ডিলারদের বিক্রয়ের কার্যক্রম জেলা প্রশাসন থেকে তদারকি করা হবে বলে জানান। অপরদিকে হোটেল রেস্তোরা মালিক সমিতির সভাপতি শ্যামল কুমার ঘোষ বলেন, শুধুমাত্র রমজান মাস উপলক্ষে মালিক সমিতির যে সকল হোটেল ব্যবসায়ী সদস্যরা রয়েছেন তাদেরকে ইফতার সামগ্রী বিক্রয়ের জন্য নিজ দোকানের সামনে সীমানা থেকে রাস্তার ৪ফিট অংশ ব্যবহারের অনুমতিদানে জেলা প্রশাসনের সুদৃষ্টি প্রয়োজন এবং মালিক সমিতির পক্ষ থেকে পবিত্র রমজান মাসের পরিষ্কার পরিচ্ছন্নতা ও পবিত্রতা বজায় রাখার জন্য একটি মনিটরিং সেল কাজ করে যাবে বলে তিনি সভায় অবগত করেন।