স্টাফ রিপোার্টার (দিনাজপুর২৪.কম) মাথায় হেলমেট না থাকলে মোটরসাইকেলে পেট্রল না দেয়ার বিষয়ে পুলিশের আহ্বানে সাড়া দিয়েছেন দিনাজপুরের পেট্রল পাম্প মালিকরা। মঙ্গলবার (৪ সেপ্টেম্বর থেকে এই সিদ্ধান্ত কার্যকর করা হবে। গত সোমবার রাত ৯টায় দিনাজপুর কোতয়ালী থানায় জেলা পেট্রল পাম্প মালিকদের সাথে পুলিশ বিভাগের এক বৈঠকে তারা ঐক্যমতে পৌঁছেন। খোলা বাজারে তেল বিক্রি বন্ধ ও মোটরসাইকেল ক্রয়ের সময় বাধ্যতামূলক হেলমেট ব্যবহারের ওপর গুরুত্ব দিয়ে চালক ও পাম্প কর্মচারীদের সচেতনতা বাড়াতে ব্যানার, পোস্টার বিতরণের বিভিন্ন পরিকল্পনাও গ্রহণ করা হয় ওই বৈঠকে। সভায় দিনাজপুরের অতিরিক্ত পুলিশ সুপার (সদর সার্কেল) সুশান্ত সরকার বলেন, সড়ক-মহাসড়ক ছাড়াও আঞ্চলিক সড়কেও এখন অহরহ মোটরসাইকেল দুর্ঘটনা ঘটছে। মাথায় হেলমেট না থাকার কারণে বেশি ক্ষতি হচ্ছে। হেলমেট থাকলে ক্ষতি কমে আসবে। দুর্ঘটনা ঘটলেও মৃত্যুর হার কমে আসবে। তাই মোটরসাইকেল দুর্ঘটনারোধে হেলমেট ছাড়া পেট্রল না দিতে পাম্প মালিকদের চিঠি দেয়াসহ ব্যানার, পোস্টার বিতরণ করা হবে।
দিনাজপুর পেট্রল পাম্প মালিকরা জানান, পুলিশের পক্ষ থেকে আমাদেরকে মাথায় হেলমেট না থাকলে মোটরসাইকেলে পেট্রল না দেয়ার বিষয়ে অনুরোধ করা হয়েছে। বিষয়টি আমরা গুরুত্ব সহকারে নিয়েছি। পেট্রল নিতে মোটরসাইকেল চালকদের পাম্পে আসতে হয়। এই পাম্প থেকে প্রতিদিন শত শত লিটার পেট্রল বিক্রি হয়ে থাকে। এই সিদ্ধান্ত বাস্তবায়ন করা গেলে সড়ক দুর্ঘটনা অনেকাংশে কমে আসবে। সিদ্ধান্ত বাস্তবায়নে জেলার প্রতিটি পাম্প মালিক ও কর্মচারীদের নিয়ে সেমিনার এবং চালকদের হেলমেট ব্যবহারে সচেতনতা বাড়াতে বিভিন্ন কর্মসূচি গ্রহণের কথাও তারা জানান।
সভায় দিনাজপুর কোতয়ালী থানার অফিসার ইনচার্জ (ওসি) রেদওয়ানুর রহিম, ওসি (তদন্ত) এম নাজমুল হাসানসহ বিভিন্ন পেট্রল পাম্পের মালিকরা উপস্থিত ছিলেন।