(দিনাজপুর২৪.কম) দিনাজপুরে নাইট কোচগুলো টাকার লোভে প্রয়োজনের তুলনায় অতিরিক্ত লিচুর খাচি নিয়ে দিনাজপুর থেকে দেশের বিভিন্ন প্রান্তে চলে যাচ্ছে। যা যে কোন সময় মারাত্মক দুঘর্টনার কারণ হতে পারে মনে করছেন অভিজ্ঞ মহল। হানিফ-নাবিল-শ্যামলী থেকে শুরু করে বিভিন্ন কোচ এবং বাস পাল্লা দিয়ে পরিবহন হিসেবে প্রয়োজনের তুলনায় বেশি করে লিচু বোঝাই খাচি ছাদে উঠাচ্ছেন।
সরেজমিনে জানা গেছে, বিভিন্ন কোচ ও বাসগুলো প্রতি লিচু বোঝাই খাচি দেশের বিভিন্ন প্রান্তে পৌঁছাতে পরিবহন ভাড়া হিসেবে পান ২০০ থেকে ৫০০ টাকা পর্যন্ত। মানুষের জীবনের যেন মূল্যেই নেই। এভাবে অতিরিক্ত লিচু বোঝাই খাচি ছাদে উঠিয়ে চলছে অর্থ বাণিজ্য। বিষয়টি নিয়ে সুধী ভাবলেও পরিবহন কর্তৃপক্ষের যেন মাথা ব্যথা নেই। নাইট কোচগুলো অতিরিক্ত পণ্য পরিবহন লিচু বোঝাই খাচি দেশের বিভিন্ন প্রান্তে নিয়ে যাচ্ছে এ বিষয়ে দিনাজপুর মটর শ্রমিক ইউনিউনের সভাপতি মোঃ রফিক এবং সাধারণ সম্পাদক রাব্বীকে প্রশ্ন করা হলে তিনিরা জানান, এটা মালিক গ্রুপের উপর বর্তায়। মালিকরা চাইলেই নাইটকোচে প্রয়োজনে তুলনায় অতিরিক্ত পণ্য পরিবহন বন্ধ হবে। নাম প্রকাশে অনিচ্ছুক পরিবহন মালিক গ্রুপের একজনকে প্রশ্ন করা হলে তিনি বলেন, কি করবো বলেন.. আপনারাতো সবই বোঝেন। তিনি আরও কোন উত্তর দিতে রাজি হননি।
মানুষের জীবনের ঝুঁকি নিয়ে নাইটকোচগুলো অতিরিক্ত লিচু বোঝাই খাচা নিয়ে যেভাবে দেশের বিভিন্ন প্রান্তে দিনাজপুর থেকে অন্যত্র যাচ্ছেন তা যে কোন সময় মারাত্মক দুঘর্টনা ঘটতে পারে। জীবনের তাগিদে দিনাজপুর থেকে দেশের বিভিন্ন প্রান্তে ছুটছে মানুষ। কিন্তু এই নাইটকোচ গুলো নিয়ম বর্হিভুতভাবে যেভাবে পণ্য পরিবহন শুরু করেছেন তাহলে মানুষের জীবনের নিরাপত্তা কোথায়? কে করবে এর সমাধান?
ভুক্তভোগী যাত্রীরা নিজেদের জীবনের নিরাপত্তা নিশ্চিত করণের জন্য পৌরসভার মেয়র, আইনশৃঙ্খলা বাহিনী এবং সরাসরি জেলা প্রশাসনের হস্তক্ষেপ কামনা করেছেন।