এম,এ সালাম (দিনাজপুর২৪.কম) দিনাজপুর পৌর এলাকার জুলুম সাগর নামক পুকুরে নৌকা নিয়ে ঘুরতে গিয়ে পানিতে ডুবে এক স্কুল ছাত্র সহ প্রাণ গেছে ২ জনের। গতকাল শনিবার দুপুর ২টায় দিনাজপুর শহরের চৌধুরী বাগান-ব্যাপ্টিশ মিশন স্কুল এলাকায় জুলুম সাগর নামক একটি পুকুরে এই ঘটনা ঘটে। এরা হলো-শহরের চাতড়াপাড়া মহল্লার চন্দন রায়ের ছেলে ও সেন্ট যোসেফস স্কুলের দীপু রায় দ্বীপ (১৫) ও মিশন রোড এলাকার-আব্দুর রশিদের ছেলে ইলেকট্রিক মিস্ত্রী রাজা (১৯)।
স্থানীয়রা জানান, গতকাল শনিবার দুপুর ২টায় তারা দুজনেই দিনাজপুর পৌর এলাকার জুলুম সাগর পুকুরে নৌকা নিয়ে ঘুরতে যায়। এ সময় নৌকা থেকে পড়ে যায় স্কুল ছাত্র দ্বীপ। তাকে বাঁচাতে তার সাথে থাকা রাজা নামে ওই যুবক নৌকা থেকে পানিতে নামে। এক পর্যায়ে তারা দুজনেই পানিতে তলিয়ে যায়। স্থানীয়রা দুজনকেই উদ্ধার করে দিনাজপুর এম. আব্দুর রহিম মেডিক্যাল কলেজ হাসপাতালে নিয়ে গেলে কর্তব্যরত চিকিৎসক তাদের মৃত ঘোষণা করেন। স্থানীয় নাজমা বেগম, তাজমীর তৌফিক মজিবর রহমান সহ এলাকাবাসী অভিযোগ করেন, শহরের জুলুম সাগর পুকুরটি দিনাজপুর পৌরসভা কর্তৃক লিজ নেন মনতা ডেকোটরের মালিক (মনতা)। পুকুরের রক্ষণাবেক্ষনের দায়িত্ব তারই। তাদের কর্তব্য, অবহেলায় এবং খামখেয়ালিপনায় ২টি প্রাণ অকালে ঝড়ে পড়লো। পুকুরে রক্ষিত নৌকাটি এই নিহত ছেলেগুলোর হাতে দিলো কে ? মাঝিবিহীন নৌকা-সাঁতার না জানা এই ছেলে ২টি কে পানিতে ডুবে প্রাণ দিতে হলো। এই জায়গাটির নাম চৌধুরী বাগান নামে পরিচিত। পাশে ব্যাপ্টিশ মিশন স্কুল। এই এলাকায় বসতভিটা স্কুল কলেজের ছাত্র-ছাত্রী সহ ছোট ছোট ছেলে মেয়েরা রয়েছে। অতিরিক্ত বৃষ্টির কারণে ইতিমধ্যেই কয়েকজনের বাড়ীর প্রাচীর ও শৌচাগার ভেঙ্গে পুকুরে তলিয়ে গেছে। ইজারাদার মনতা ডেকোরেটরের মালিক (মনতা) তার জনবল দিয়ে সেলোমেশিন লাগিয়ে পানি উঠিয়ে পুকুর ভর্তি করে। ফলে এলাকাবাসী বাসাবাড়ী প্রতিনিয়ত ক্ষতিগ্রস্ত হচ্ছে। এ ব্যাপারে দিনাজপুর কোতয়ালী থানার ওসি (তদন্ত) মোঃ আসাদুজ্জামান আসাদ ঘটনার সত্যতা স্বীকার করে বলেন, পুকুরে ডুবে মৃর্ত্যুবরণ হয়েছে ২ জনের। তবে এ ব্যাপারে কোন অভিযোগ পাওয়া যায়নি। অভিযোগ আসলে তদন্ত করে আইনগত ব্যবস্থা নেয়া হবে।