মাহবুবুল হক খান (দিনাজপুর২৪.কম) দিনাজপুর এম আব্দুর রহিম মেডিকেল কলেজ হাসপাতালের সাবেক পরিচালক ও বিএমএ দিনাজপুর শাখার সাবেক সভাপতি ডা. মো. শাহ আব্দুল আহাদ করোনাভাইরাসে আক্রান্ত হয়ে মৃত্যুবরণ করেছেন। বুধবার (১৭ জুন) সকাল ৮.২০ মিনিটের সময় দিনাজপুর এম আব্দুর রহিম মেডিকেল কলেজ হাসপাতালের আইসিইউতে চিকিৎসাধীন অবস্থায় তাঁর মৃত্যু হয়। দিনাজপুরে করোনাভাইরাসে আক্রান্ত হয়ে এই প্রথম কোন চিকিৎসকের মৃত্যু হলো।
দিনাজপুর সিভিল সার্জন ডা. মো. আব্দুল কুদ্দুছ করোনায় আক্রান্ত হয়ে ডা. মো. শাহ আব্দুল আহাদ’র মৃত্যুর খবরটি নিশ্চিত করে জানান, ‘গত ৮ জুন তাঁর নমুনায় করোনা পজিটিভ শনাক্ত হয়। পরে ৯ জুন তাঁকে দিনাজপুর এম আব্দুর রহিম মেডিকেল কলেজ হাসপাতালের আইসিইউতে ভর্তি করা হয়। আজ বুধবার সকাল ৮.২০ মিনিটের সময় তাঁর মৃত্যু হয়। তিনি বলেন, ডা. শাহ আব্দুল আহাদ আগে থেকেই ডায়াবেটিস ও উচ্চ রক্তচাপসহ বিভিন্ন রোগে আক্রান্ত ছিলেন।’
মৃত্যুকালে তাঁর বয়স হয়েছিল ৬৫ বছর। তিনি এক ছেলে ও এক মেয়েসহ অসংখ্য গুনগ্রাহি রেখে গেছেন। এই কৃতিসন্তান দিনাজপুর জেলার চিরিরবন্দর উপজেলার আলোকদিহি গ্রামের বাসিন্দা ছিলেন।
দিনাজপুর এম আব্দুর রহিম মেডিকেল কলেজের শিক্ষক বিশিষ্ট শিশুরোগ বিশেষজ্ঞ ডা. মশিউর রহমান বলেন, ডা. মো. শাহ আব্দুল আহাদ ছিলেন অত্যন্ত দয়ালু, পরোপকারী, সদালাপী, ধার্মিক, ন্যায়পরায়ন এবং দক্ষ প্রশাসক। ২৫০ শয্যাবিশিষ্ট দিনাজপুর জেনারেল হাসপাতালের তত্বাবধায়ক ডা. মো. আহাদ আলী এই গুনি ব্যক্তি ডা. মো. শাহ আব্দুল আহাদ’র রুহের মাগফিরাত কামনার পাশাপাশি দিনাজপুর এম আব্দুর রহিম মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে জরুরীভাবে হাইফ্লো অক্সিজেন সরবরাহ নিশ্চিত করতে সংশ্লিষ্ট কর্তৃপক্ষের সদয় দৃষ্টি আকর্ষণ করেছেন।