(দিনাজপুর২৪.কম) আতঙ্কে মুক্তিযোদ্ধা পরিবার বার বার হামলা করছে দুর্বৃত্তরা। পুলিশ সুপারের কাছে আবেদন করার পরেও কোন ফল পাওয়া যাচ্ছে না। তারই সুযোগে একের পর এক হামলা চালিয়ে যাচ্ছে এই দুর্বৃত্তরা। কখনও ভাইয়ের হাত ভেঙ্গে দিচ্ছে আবার কখনও বাড়ী ঘরে আগুন দিচ্ছে আবার কখনো স্ত্রীকে হত্যার চেষ্টা করা হচ্ছে। সব মিলিয়ে আতঙ্কেই রয়েছে এই মুক্তিযোদ্ধা পরিবার। একের পর এক ঘটনা ঘটিয়েই চলেছে দিনাজপুর শহরের নিমনগর শেখপুরা এলাকার ২৭নং রেলব্রীজ সংলগ্ন বীর মুক্তিযোদ্ধার বসতভিটায়। নাশকতা ও ওয়ারেন্টভুক্ত আসামী এলাকার চি‎িহ্নত সন্ত্রাসী সেকেন শেখের পুত্র ইসাহাক আলী, তার ছেলে রাজু সন্ত্রাসী, অবাঙ্গালী শাহীন, জিল্লুরসহ প্রায় ১০ জনের একটি সন্ত্রাসী সংঘবদ্ধ দল আধুনিক অস্ত্রে সজ্জিত হয়ে বীর মুক্তিযোদ্ধা আব্দুল হালিমের পুত্র জাহিদ ও তার স্ত্রী তহমিনা বেগম জাহেদাকে গত ২৫ মে আনুমানিক বিকাল ৪.৩০ মিনিট সময়ে মারপিটসহ বাড়ি ঘর ভাংচুর করে। আশেপাশের লোক এগিয়ে আসলে ঘটনাস্থল থেকে সন্ত্রাসীরা জীবন নাশের হুমকি দিয়ে পালিয়ে যায়। এইসব চি‎িহ্নত সন্ত্রাসীদের বিরুদ্ধে আদালতে ও থানায় ৬টি মামলা চলমান রয়েছে। যার নং- ২৮২সি/১৩, ৩১১পি/১৩, সিআরপিসি মামলা নং-১৮০পি/১৩, তাং-১৯/০৮/১৩, জি, আর ৮১/১৪ সদর মামলা নং ৩৯, তাং-২৭/০২/২০১৪ মামলা নং-৪২/১২৪, তাং-০৬/০৩/২০১৪। এছাড়া উল্লেখিত আসামীদের বিরুদ্ধে নাশকতার মামলা রয়েছে, যার নং-জিআর ৬১/১৬। সন্ত্রাসীদের বিরুদ্ধে অগ্নি সংযোগ ও বাড়ি ঘর ভাংচুর, মাছ চুরি ও জীবন নাশের চেষ্টা, হাত ভেঙ্গে দেওয়ারও মামলা রয়েছে। চাঁদাবাজিসহ ওয়ারেন্টভূক্ত মামলার আসামী মামলার তোয়াক্ক না করে গত ২৫ মে বাড়িÑঘর ভাংচুরের ঘটনা ঘটিয়েছে। এ ব্যাপারে দিনাজপুর পুলিশ সুপার বরাবরে ২৭/০৫/২০১৮ ইং তারিখে অভিযোগ দাখিল করা হয়।