এম.এ সালাম, দিনাজপুর প্রতিনিধি: আজ শনিবার আনুমানিক ২টা ৩৫মিনিট সময় শোভন চেয়ার ৬টি টিকেট সহ হাতেনাতে একজনকে গ্রেফতার করতে সক্ষম হয়েছে দিনাজপুর জিআরপি থানা পুলিশ। দিনাজপুর থেকে ঢাকা আন্তঃনগর ট্রেন সমূহের অগ্রীম টিকেট দেওয়া শুরু হয় কোরবানী ঈদের কয়েকদিন আগের থেকে। অতিরিক্ত বা তার অধিক দামে বিক্রিয়ের উদ্দেশ্যে স্থানীয় প্রতিতা, টোকাই, বিভিন্ন পাড়া মহল্লার বিপদগামী ছেলে মেয়েদের লাইনে দাঁড় করিয়ে ১০জন কে দিয়ে ৪০টি টিকেট প্রতিদিন আন্তঃনগর ট্রেনের টিকেট কাটিয়েছিল পৌর এলাকা ১নং ওয়ার্ড লালবাগের বাসিন্দা মোঃ কফিল উদ্দিনের পুত্র মোঃ আমিনুল ইসলাম (৩৫)। এমন খবরে গোপন সংবাদের ভিত্তিতে মাঠে নামে দিনাজপুর জিআরপি পুলিশ। পরিশেষে ১৭ই আগস্ট শনিবার আনুমানিক ২.৩৫ মিনিট সময় ১নং প্লাট ফরর্মের গেটের সামনে টিকেট বিক্রির সময় ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তার নির্দেশে এএসআই শাহিন আলম, সহিদুলসহ সঙ্গীয় ফোর্স নিয়ে হাতেনাতে দিনাজপুর থেকে ঢাকা গামী টিকেট নং বিজিপি ০০৯৪০৫৬২ আসন সংখ্যা-২টি ৩৬/৩৭, অপর টিকেট বিজিপি ০০৯৪০৬৫২ আসন সংখ্যা-৪টি ১৭, ১৮, ১৯, ২০ আমিনুল কে টিকেটসহ গ্রেফতার করা হয়। দিনাজপুর থেকে ঢাকা যাওয়ার তারিখ ২০ আগস্ট ২০১৯। এ ব্যাপারে দিনাজপুর জিআরপি থানার ওসি মোঃ গুলজার হোসেন বলেন, আমরা খবর পেয়েছি আমিনুল ইসলামের মতো আরো অনেকেই ঈদের ঢাকা ফেরত টিকেট বিপদগামী ছেলে মেয়েদের দিয়ে আন্তঃনগর টিকেট কাউন্টারে লাইনে দাঁড় করে প্রায় শত শত টিকেট তারা কেটে রেখেছে অধিক দামে বিক্রয়ের উদ্দেশ্যে। অনেক চেষ্টার পরে আমরা ১জনকে গ্রেফতার করতে সক্ষম হয়েছি। বাকীদেরকেও পর্যায়ক্রমে গ্রেফতার করা হবে বলে তিনি জানান। এ ব্যাপারে জিআরপি থানায় একটি মামলা দায়ের হয়েছে। যাহার মামলা নং-০১, তাং-১৭/০৪/২০১৯।