স্টাফ রিপোর্টার (দিনাজপুর টোয়েন্টিফোর ডটকম) দিনাজপুরের বিরামপুরে অ্যালকোহল-জাতীয় পানীয় পান করে ঈদ উদযাপন করতে গিয়ে স্বামী-স্ত্রীসহ ৬ জনের মৃত্যু হয়েছে। মৃত্যুর বিষয়টি নিশ্চিত করেছেন বিরামপুর থানার অফিসার ইনচার্জ মোঃ মনিরুজ্জামান ২ জনের ।

এ ঘটনায় বিরামপুর পৌর শহরের শান্তি মোড় এলাকার “পল্লী হোমিও হল” নামের একটি প্রতিষ্ঠানের হোমিও চিকিৎসক আবদুল মান্নানকে আটক করেছে পুলিশ।

বিরামপুর উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে বুধবার (২৭ মে) ভোর রাতে ৩ জন,রংপুর মেডিক্যাল কলেজ হাসপাতালে নিয়ে যাওয়ার পথে ১ জন এবং দুপুরে স্বামী-স্ত্রী ২ জনের মৃত্যু হয়।

মৃতরা ব্যাক্তিরা হলেন বিরামপুর পৌর শহরের আব্দুল মতিন (২৭), আজিজুল ইসলাম (৩৩), মহসিন আলি (৩৮) ,অশৃত (২৫), মঞ্জুয়ারা বেগম (৩৫) এবং শফিকুল ইসলাম (৪৫)।

ওসি মোঃ মনিরুজ্জামান জানান, অ্যালকোহল-জাতীয় কোনো পানীয় খেয়ে বুধরার ভোরে ৪ জন গুরুতর অসুস্থ হয়ে পড়েন। হাসপাতালে নিয়ে যাওয়ার পথে তিনজনের মৃত্যু হয় এবং রংপুর মেডিক্যাল কলেজ হাসপাতালে নিয়ে যাওয়ার পথে একজনের মৃত্যু হয়।

অপর ২জন স্বামী-স্ত্রীও অ্যালকোহল-জাতীয় কোনো পানীয় সেবনের কারণে বিরামপুর উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে চিকিৎসাধীন অবস্থায় মৃত্যু হয়েছে।  ময়নাতদন্তের পরে বিস্তারিত জানা যাবে।

বিরামপুর উপজেলা স্বাস্থ্য কর্মকর্তা ডা. সোলায়মান হোসেন মেহেদী জানান, মারা যাওয়া ৬ জন ব্যক্তি অ্যালকোহল-জাতীয় কোনো পানীয় পান করেছিলেন।

এসময় ঘটনাস্থল পরিদর্শন করেন উপজেলা নির্বাহী অফিসার মোঃ তৌহিদুর রহমান ও বিরামপুর সার্কেলের সিনিয়র সহকারী পুলিশ সুপার মিথুন সরকার।