(দিনাজপুর২৪.কম) বাংলা সংস্কৃতির ঐতিহ্যকে ধারন ও বহন করতে প্রতি বছরের ন্যায় দিনাজপুরের ফুলবাড়ী চাাঁদপাড়া মন্দির চত্বরে দিনব্যাপী ঐতিহ্যবাহী চরক মেলা অনুষ্ঠিত হয়েছে। মেলা উপভোগ করতে বিভিন্ন এলাকা থেকে হাজার হাজার দর্শনার্থীদের ভিড় জমতে দেখা যায়। চরক মেলাকে কেন্দ্র করে মেলায় রকোমারী দোকান বসতে দেখা গেছে যা শিশু ও কিশোর কিশোরীদের আকর্ষণ করে।

গত শনিবার বিকালে ফুলবাড়ী পৌর এলাকার চাাঁদপাড়া মন্দির কমিটির আয়োজনে ঐতিহ্যবাহী এই চরক মেলা বসে।
মেলার মাঠে হিন্দু সম্প্রদায়ের লোকেরা চরক পুঁজা ও বিভিন্ন নিয়ম পালন করে চরক মেলার আনুষ্ঠকিতা শেষ করে। মেলায় চরক গাছে জীবন্ত মানুষকে পিঠে লোহার কল ফুড়িয়ে বাঁশের চরকিতে বেধেঁ ঘুরানো হয়। স্থানীয় ভাষায় এ মেলাকে বলা হয় পিঠফোড়া মেলা। এবার চরকে অংশগ্রহন করেন অরবিন্দু রায়।

মেলা কমিটির সভাপতি সুরজিৎ কুমার দাস জানান, এই চরক মেলা প্রায় ২০বছর ধরে মন্দির কমিটি’র উদ্যোগে আযোজন করে আসছে। প্রতিবছর হিন্দু সম্প্রদায়ের লোকেরা শতবছর ধরে এই চরক পুজাঁ ও মেলার আয়োজন করে। তারই অংশ হিসেবে এই চরক মেলার আয়োজন করা হয়।

ঐতিহ্যবাহী এই মেলা পরিদর্শন করেন ফুলবাড়ী পৌর মেয়র মুরতুজা সরকার মানিক ও সংশ্লিষ্ট ওয়ার্ড কাউন্সিলর ময়েজ উদ্দিন মন্ডল প্রমুখ।