(দিনাজপুর২৪.কম) প্রচণ্ড দাবদাহে পাকিস্তানে মৃতের সংখ্যা ১ হাজার ছাড়িয়েছে। এর মধ্যে শুধুমাত্র সিন্ধুতেই মারা গেছেন ১ হাজার ১১ জন। এর মধ্যে গতকাল বুধবার করাচিতেই মারা গেছে কমপক্ষে ২২৯ জন। সরকারি এবং বেসরকারি হাসপাতালের সূত্র দিয়ে এ খবর জানিয়েছে ডন।
সরকারি কর্মকর্তারা বলছেন, গত ৫ দিনে রাজ্যের ৪০ হাজারের মতো মানুষ দাবদাহে আক্রান্ত হয়েছে। এদের মধ্যে করাচির জিন্না পোস্ট গ্রাজুয়েট মেডিকেল সেন্টারে(জিপিএমসি) সাড়ে ৭ হাজার চিকিৎসা নিয়েছেন।  ওই হাসপাতালে চিকিৎসাধীন অবস্থায় মারা গেছে ৩১১ জন রোগী।
পাকিস্তানের স্থানীয় সংবাদমাধ্যমগুলো জানাচ্ছে, সিন্ধুতে মারা যাওয়া এক হাজার ১১ জনের মধ্যে গতকাল বুধবারই মারা গেছেন ২২৯ জন। প্রদেশটিতে মোট মৃতের সাড়ে নয়শ জনই করাচির বাসিন্দা।
এদিকে, গতকাল বুধবার থেকে তাপদাহ খানিকটা কমে আসায় সিন্ধু এলাকায় খানিকটা স্বস্তি মিলেছে বলে জানিয়েছে স্থানীয় প্রশাসন। হাসপাতালগুলোয়ও নতুন রোগী ভর্তি হওয়ার সংখ্যা উল্লেখযোগ্য হারে কমে এসেছে। টানা এক সপ্তাহের তাপদাহ শেষে এদিন সর্বোচ্চ তাপমাত্রা ৩৭ ডিগ্রি সেলসিয়াসে ও সর্বনিন্ম তাপমাত্রা ৩০.৫ ডিগ্রি সেলসিয়াসে নেমে আসে। সেই সঙ্গে বাতাসের আর্দ্রতাও বেড়েছে।
আবহাওয়া অধিদফতর জানিয়েছে, বৃহস্পতিবার (২৫ জুন) পাকিস্তানে সর্বোচ্চ তাপমাত্রা ৩৮ ডিগ্রি থেকে ৪০ ডিগ্রির মধ্যে থাকবে।(ডেস্ক)