(দিনাজপুর২৪.কম) ছোটবেলায় বাবাকে হারিয়ে অনাথ হয়ে পড়ে দুই বোন। সে সময় তাদের ভরণ পোষণের দায়িত্ব কেউ না নিলেও এগিয়ে আসেন তিনি। দুই বোনকে নিজের বোন হিসেবে দত্তক নিয়ে তাদের সব দায়িত্ব কাঁধে তুলে নেন। শুধু তাই নয়, নিজের জমানো সব পুঁজি খরচ করে তাদের বড়ও করেন। এরপর সেই দুই অনাথ বোনকে হিন্দু রীতি মেনে বিয়েও দেন। এভাবেই দৃষ্টান্ত গড়েছেন বাবাভাই পাঠান নামের এক মুসলিম।

গত সোমবার ভারতীয় সংবাদমাধ্যম নিউজ ১৮ এর প্রতিবেদনে এ তথ্য জানানো হয়েছে। খবরে বলা হয়েছে, আরিফ শাহ নামে এক সাংবাদিক রোববার নিজের টুইটার অ্যাকাউন্টে বাবাভাই ও তার পরিবার এবং দুই হিন্দু বোনের বিভিন্ন মুহূর্তের ছবি পোস্ট করেন।

সেখানে দেখা গেছে, দত্তক নেওয়া দুই হিন্দু বোনকে বিয়ের পর যখন বিদায় জানাচ্ছেন তখন কান্নায় ভেঙে পড়েন বাবাভাই। তখন দুইবোনকে জড়িয়ে ধরেন তিনি।

বাবাভাইয়ের প্রশংসা করেছেন তার প্রতিবেশীরাও। তারা বলছেন, ধর্মীয় গোঁড়ামি ভেঙে দুই বোনের প্রকৃত দাদা হয়ে উঠেছেন আহমেদনগরের এই ব্যক্তি।

টুইটারে ভারতীয় একজন লিখেছেন, ‘তিনিই (বাবাভাই) প্রকৃত ভারতীয়। ভারতীয় সংস্কৃতি আমাদের এই শিক্ষাই দেয়।’

‘বাবাভাইয়ের এই কাজ অত্যন্ত প্রশংসনীয়। ধর্ম-বর্ণ নির্বিশেষে আমাদের মনুষ্যত্বকে জাগ্রত করা উচিত। মানুষের পাশে দাঁড়ানো উচিত,’ টুইটারে এমনটাই লিখেছেন আরেকজন। -ডেস্ক