সিলেট নগরীর শিবগঞ্জ এলাকায় ত্রাণের দাবিতে রোববার বিক্ষোভ করেন শ্রমিকরা।

(দিনাজপুর২৪.কম)সিলেট, ঢাকার নবাবগঞ্জ ও নাটোরের বাগাতিপাড়ায় ত্রাণের দাবিতে দরিদ্র মানুষ ও মোটর শ্রমিকরা বিক্ষোভ এবং মানববন্ধন করেছেন।

মোটর শ্রমিকদের দাবি করোনাভাইরাসের কারণে সড়কে গণপরিবহন চালানো নিষেধাজ্ঞা থাকায় তারা গাড়ি চালাতে পারছেন না। এখন তাদের আয় বন্ধ। পরিবার ও ছেলেমেয়ে নিয়ে কষ্টে জীবনযাপন করছেন। প্রতিনিধিদের পাঠানো খবর-

নবাবগঞ্জ (ঢাকা) : ঢাকার নবাবগঞ্জ টু পাড়াগ্রাম ভায়া হেমায়েতপুর ও কদমতলী সড়কে চলাচল করা অটোরিকশা (সিএনজি) চালকরা গতকাল রোববার উপজেলা প্রশাসনিক ভবন এলাকায় ত্রাণের দাবিতে মানববন্ধন করেছেন। এ সময় সিএনজিচালকরা বলেন, কোনো জনপ্রতিনিধি তাদের খোঁজখবর নেয় না। উপজেলার প্রায় দেড়শ’ সিএনজিচালক কোনো সরকারি ও বেসরকারি ত্রাণ এখনও পাননি। নবাবগঞ্জ উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা এইচএম সালাউদ্দীন মনজু বলেন, তাদের বিষয়টি উপজেলার ১৪ ইউপি চেয়ারম্যানকে বলা হয়েছে। নিজ ইউনিয়নের চেয়ারম্যানদের কাছে জাতীয় পরিচয়পত্র জমা দিতে হবে।

বাগাতিপাড়া (নাটোর) : নাটোরের বাগাতিপাড়ায় ত্রাণের জন্য উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তার কার্যালয়ের সামনে ভিড় করেন উপজেলার বিভিন্ন এলাকার ত্রাণবঞ্চিতরা। গতকাল রোববার সকালে প্রায় অর্ধশত নারী-পুরুষ সেখানে জড়ো হন। কিন্তু ত্রাণ না পেয়ে খালি হাতে ফিরে যান এসব মানুষ।

সিলেট : সিলেট নগরীর শিবগঞ্জে ত্রাণের দাবিতে বিক্ষোভ করেছেন শ্রমিকরা। গতকাল রোববার নগরীর শিবগঞ্জ পয়েন্ট সংলগ্ন সড়কে বিক্ষোভ শুরু করেন এলাকায় বসবাসরত দিনমজুর ও শ্রমিকরা। এ সময় খবর পেয়ে সিটি কর্পোরেশনের মেয়র আরিফুল হক চৌধুরী উপস্থিত হয়ে ত্রাণ দেয়ার আশ্বাস দিলে বিক্ষোভকারীরা চলে যান।-ডেস্ক