(দিনাজপুর২৪.কম) অবশেষে তোপের মুখে ক্ষমা চেয়ে সরিয়ে নেওয়া হলো দেব অভিনীত বাংলাদেশি ছবি ‘কমান্ডো’র টিজার। দেবের ইউটিউব চ্যানেল ‘দেব এন্টারটেইনমেন্ট ভেনচার্স’ থেকে গতকাল সোমবার সন্ধ্যায় এটি সরিয়ে নেওয়া হয়।

এর আগে, পশ্চিমবঙ্গের এই সুপারস্টারের জন্মদিন উপলক্ষে গত ২৫ ডিসেম্বর সন্ধ্যায় ‘কমান্ডো’র টিজারটি ভক্ত-দর্শকদের উপহার দেন দেব। কিন্তু এটি প্রকাশের পরপরই ছবিটি ঘিরে ইসলাম ধর্ম অবমাননার অভিযোগ ওঠে নেট দুনিয়ায়। এ নিয়ে সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যমগুলোতে শুরু হয় তুমুল সমালোচনা। তবে ছবির প্রযোজনা প্রতিষ্ঠান শাপলা মিডিয়ার পক্ষ থেকে এই অভিযোগ অস্বীকার করা হয়েছে। কিন্তু তারপরও শেষ রক্ষা হলো না। অবশেষে ক্ষমা চেয়ে ইউটিউব থেকে ‘কমান্ডো’র টিজার সরিয়ে নেন এর প্রযোজনা প্রতিষ্ঠান।

প্রযোজক সেলিম খান বলেন, ‘টিজারের একটি দৃশ্য দেখে বলে দেওয়া যায় না সিনেমার পুরো গল্প কী হবে? আমি নিজেও একজন মুসলিম। চাঁদপুরের একটি ইউনিয়ন পরিষদের চেয়ারম্যান আমি। সেখানের ৯৫ শতাংশ লোক মুসলিম। আমি নিজের টাকায় সেখানে একটি মসজিদও করছি। ইসলামকে অবমাননা করার মতো স্পর্ধা বা সাহস আমার নেই।’

অন্যদিকে, ‘কমান্ডো’র টিজার সরিয়ে নেওয়া প্রসঙ্গে নির্মাতা শামিম আহমেদ রনী বলেন, ‘সারা দেশের ধর্মপ্রাণ মুসলিমরা টিজারের কিছু অংশ দেখে কষ্ট পেয়েছেন।

আমি বা আমার প্রযোজক তাদের বলতে চাই, আমাদের কোনও উদ্দেশ্য ছিল না পবিত্র কলেমা কিংবা ইসলামের অবমাননা। পুরো ছবিটা দেখলে উল্টো সবাই বুঝতে পারতো আমরা ইসলামকে শান্তির ধর্ম হিসেবেই দেখিয়েছি। বরং যারা অপব্যাখ্যা করে ছবিটা তাদের বিরুদ্ধে।’ তিনি আরও বলেন, ‘আমি বা আমার প্রযোজকও মুসলিম। ইসলামের জন্য অবমাননা করা হয় এমন কিছু আমরা কখনোই করিনি, করব্ও না।

তবুও ধর্মপ্রাণ মুসলমানদের অনুভূতিতে অনিচ্ছাসত্ত্বেও আঘাত করায় আমি, আমার টিম দুঃখ ও ক্ষমা প্রকাশ করছি এবং তাদের বক্তব্যের প্রতি শ্রদ্ধা জানিয়ে আমরা “কমান্ডো”র টিজারটি চ্যানেল থেকে সরিয়ে নিয়েছি। একই সঙ্গে যারা টিজারটি ডাউনলোড করে বিভিন্ন সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যমে শেয়ার করেছেন, তাদেরকেও রিমুভ করে দেয়ার জন্য অনুরোধ করছি। খুব শিগগিরই আমরা টিজারটি নতুনভাবে সম্পাদনা করে প্রকাশ করবো।’

উল্লেখ্য, ‘কমান্ডো’ছবিতে ইসলামকে অবমাননা করা হয়েছে বলে অভিযোগ তুলেছেন অনেকে। তুমুল আলোচনা-সমালোচনার মধ্যে মাওলানা আব্দুল হাই মুহাম্মাদ সাইফুল্লাহ’র একটি ফেসবুক স্ট্যাটাস ভাইরাল হয়। সেখানে তিনি ‘কমান্ডো’ ছবিকে ইসলামবিরোধী বলে আখ্যা দিয়েছেন। টিজার থেকে নেওয়া কয়েকটি স্ক্রিনশটও তিনি প্রকাশ করেছেন তার ফেসবুকে। -ডেস্ক