বি. এম. জুলফিকার রায়হান (দিনাজপুর২৪.কম) সাতক্ষীরার তালা উপজেলার ১১ নং জালালপুর ইউনিয়নে প্রকশ্যে বয়স্ক, বিধবা ও প্রতিবন্ধীদের যাচাই-বাছাই করে ভাতা গ্রহিতা তালিকা প্রণয়ন করা হয়েছে। সোমবার সকালে সংশ্লিষ্ট ইউনিয়ন পরিষদের আয়োজনে, পরিষদ চত্বরে উপকারভোগীদের তালিকা প্রণয়ন করা হয়। এউপলক্ষ্যে এক অনুষ্ঠানে সভাপতিত্ব করেন, তালা উপজেলা নির্বাহী অফিসার মো. ইকবাল হোসেন। প্রধান প্রধান অতিথি হিসেবে উপস্থিত ছিলেন তালা উপজেলা পরিষদ চেয়ারম্যান ঘোষ সনৎ কুমার।
জালালপুর ইউনিয়ন পরিষদ চেয়ারম্যান এম. মফিদুল হক লিটু’র সঞ্চালনায় বিশেষ অতিথি হিসেবে উপস্থিত ছিলেন উপজেলা পরিষদের ভাইস চেয়ারম্যান সরদার মশিয়ার রহমান, মহিলা ভাইস চেয়ারম্যান মুর্শিদা পারভীন পাঁপড়ী, উপজেলা সমাজসেবা কর্মকর্তা শেখ আব্দুল আওয়াল, জালালপুর ইউনিয়নের আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক অধ্যক্ষ রাম প্রসাদ দাস। এসময় সংশ্লিষ্ট ইউনিয়ন পরিষদের সদস্যবৃন্দ সহ দরিদ্র ও হতদরিদ্র ভাতা কার্ড আবেদনকারীরা উপস্থিত ছিলেন।
অনুষ্ঠানে স্বচ্ছতার ভিত্তিতে প্রকাশ্যে যাচাই-বাছাই করে ইউনিয়নের ১০৪ জন প্রতিবন্ধী, ৭২ জন বিধবা এবং ৭২ জন বয়স্ক ব্যক্তিকে ভাতা গ্রহনের উপকারভোগী হিসেবে তালিকাভুক্ত করা হয়।

তালায় দুই ভুয়া ডাক্তারকে ২০ হাজার টাকা জরিমানা
সরকারী ভ্যাকসিনের নামে গবাদিপশুর ভূয়া ভ্যাকসিন প্রয়োগ ও ভেটেরিনারী ডাক্তার পরিচয়ে গবাদিপশুর চিকিৎসা করার অপরাধে তালায় দুই ভূয়া পশু ডাক্তারকে ২০ হাজার টাকা জরিমানা করা হয়েছে। জরিমানার শাস্তি পাওয়া ব্যক্তিরা আপন দুই ভাই।
তালা উপজেলা নির্বাহী অফিসার ও নির্বাহী ম্যাজিস্ট্রেট মো. ইকবাল হোসেন এর ভ্রাম্যমান আদালত সোমবার (১০ ফেব্রুয়ারী) বিকালে জরিমানার আদেশদেন। জরিমানা হওয়া দুই ভূয়া ডাক্তার হলেন, তালা উপজেলার সাতপাকিয়া গ্রামের শফিকুল ইসলাম সরদারের ছেলে মেহেবুল ইসলাম প্রিন্স ও তার ভাই মো. রাসেল সরদার। বাংলাদেশ ভেটেরিনারী কাউন্সিল আইন -২০১৯ এর আওতায় তাদের প্রত্যেককেই ১০ হাজার টাকা করে মোট ২০ হাজার টাকা জরিমানা করা হয় বলে সূত্রে জানাগেছে।