(দিনাজপুর২৪.কম) ‘ঢেলে দেই, বসেন বসেন বইসা যান’ এরকম নানা হাস্য রসাত্মক বক্তব্য দিয়ে ভাইরাল হওয়া তাহেরীর বিরুদ্ধে শেষ পর্যন্ত মামলা গ্রহণ করেননি আদালত। দাওয়াতে ঈমানি বাংলাদেশের প্রতিষ্ঠাতা চেয়ারম্যান মুফতি মোহাম্মদ গিয়াস উদ্দিন আত-তাহেরীর বিরুদ্ধে ধর্মীয় অনুভূতি ও মূল্যবোধে আঘাত সৃষ্টির অভিযোগে মামলার আবেদন করেছিলেন এক আইনজীবী। কিন্তু অভিযোগে মামলা গ্রহণ করার মতো কোনো উপাদান পাননি আদালত।
মঙ্গলবার বাংলাদেশ সাইবার ট্রাইব্যুনালের বিচারক আসসামছ জগলুল হোসেন মামলাটি গ্রহণ করার মতো পর্যাপ্ত উপাদান না থাকায় তা খারিজ করে দেন। ট্রাইব্যুনালের পেশকার শামীম আল মামুন বিষয়টি গণমাধ্যমকে নিশ্চিত করেছেন।
গত রোববার বাংলাদেশ সাইবার ট্রাইব্যুনালের বিচারক আসসামছ জগলুল হোসেনের আদালতে মামলার আবেদন করেন ঢাকা আইনজীবী সমিতির একজন সদস্য। মামলার অভিযোগে উল্লেখ করা হয়েছে, ইসলাম ধর্মের পথপ্রদর্শক হজরত মুহম্মদ (সা.) এর আদর্শ ও পবিত্র ধর্মগ্রন্থ কুরআন ওয়াজ মাহফিলের মধ্যে নাচ-গান সমর্থন করে না। ইসলামের রীতিনীতি অনুযায়ী আসামির কর্মকান্ড মুনাফেকির শামিল। ওয়াজের মধ্যে গান গাওয়া ইসলাম সমর্থন করে না।

এছাড়াও ‘বসেন বসেন বইসা যান, ঢেলে দেই’ এসব বাক্য ওয়াজে তাহেরী ব্যবহার করেন, যা সম্পূর্ণ অশ্লীল। তার এসব বক্তব্যে ইসলাম ধর্মকে ব্যঙ্গ ও অবমাননা করা হয়েছে বলে অভিযোগ করা হয়। -ডেস্ক