(দিনাজপুর২৪.কম) ধর্মীয় অনুভূতিতে আঘাত দেয়ার অভিযোগে ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ের ক্রিমিনোলজি বিভাগের অধ্যাপক জিয়া রহমানের বিরুদ্ধে ডিজিটাল নিরাপত্তা আইনে দু’টি মামলা দায়ের করা হয়েছে। গতকাল  বাংলাদেশ সাইবার ট্রাইব্যুনালের বিচারক আসসামছ জগলুল হোসেনের আদালতে এ মামলা  দায়ের করা হয়েছে।
মাসিক আল বাইয়্যিনাত ও  দৈনিক আল ইহসান সম্পাদক মুহম্মদ মাহবুব আলম একটি এবং ইমরুল হাসান নামে এক আইনজীবী অপর একটি মামলা দায়েরের আবেদন করেন। এসময় ট্রাইব্যুনাল বাদীর জবানবন্দি গ্রহণ করেন। জবানবন্দি শেষে ট্রাইব্যুনাল আদেশের জন্য রেখে দেন। তবে অভিযোগ তদন্ত করে কনট্রোলার অব সার্টিফাইং অথরিটিজকে (সিসিএ) ১লা নভেম্বরের মধ্যে প্রতিবেদন দিতে বলেছেন।
এর আগে বৃহস্পতিবার জিয়া রহমানকে বক্তব্য প্রত্যাহার করে ক্ষমা চাওয়ার আহ্বান জানিয়ে লিগ্যাল নোটিশ পাঠিয়েছিলেন মুহম্মদ মাহবুব আলমের পক্ষে সুপ্রিম কোর্টের আইনজীবী মুহম্মদ শেখ ওমর শরীফ।
মামলায় অভিযোগ করা হয়েছে, ‘আসসালামু আলাইকুম’ বলা ও ‘আল্লাহ হাফেজ’ বলাকে গর্হিত, নিন্দনীয়, জঘন্য ব্যাখ্যা করেন অধ্যাপক জিয়া রহমান। এসবকে জঙ্গিবাদের সঙ্গে সম্পৃক্ত করেন তিনি।
সমপ্রতি বেসরকারি টেলিভিশন চ্যানেলের ‘উপসংহার’ নামক টকশোতে ‘ধর্মের অপব্যাখ্যায় জঙ্গিবাদ’ বিষয়ক আলোচনায় মুসলিমদের শুদ্ধ উচ্চারণে ‘আসসালামু আলাইকুম’ বলা ও ‘আল্লাহ হাফেজ’ বলাকে গর্হিত, নিন্দনীয়, জঘন্য ব্যাখ্যা করেন অধ্যাপক জিয়া রহমান। -ডেস্ক