ছবি : সংগৃহীত

(দিনাজপুর২৪.কম) এবার সরকারি অর্থায়নে বেক্সিমকো ফার্মাসিউটিক্যালসের মাধ্যমে এলো করোনাভাইরাসের ভ্যাকসিন। ভারতের সেরাম ইনস্টিটিউটের সঙ্গে চুক্তির প্রথম চালানের ৫০ লাখ করোনা টিকা আজ সোমবার দেশে এসেছে। এদিন বেলা ১১টা ২০ মিনিটে ভারতের মুম্বাই থেকে এয়ার চার্টার ফ্লাইটটি ঢাকার হযরত শাহজালাল আন্তর্জাতিক বিমানবন্দরে অবতরণ করে। প্রতি কার্টনে ১২শ’ ভায়ালে রয়েছে ১২ হাজার ডোজ টিকা রয়েছে।

স্বাস্থ্য অধিদপ্তরের কর্মকর্তা ডা. শাহরিয়ার সাজ্জাদ এ তথ্য নিশ্চিত করেছেন। তিনি বলেন, বেলা সাড়ে ১১টায় আসার কথা থাকলেও এর ১০ মিনিট আগে টিকাবাহী বিমানটি শাহজালাল বিমানবন্দরে এসে পৌঁছেছে। এ সময় বেক্সিমকো ফার্মাসিউটিক্যালসের নাজমুল হাসান পাপনসহ অন্যান্যরা উপস্থিত ছিলেন।

জানা গেছে, বিমানবন্দর থেকে এই টিকা বেক্সিমকোর টঙ্গীর গুদামে নেওয়া হচ্ছে। সারা দেশে পাঠানোর আগে এই টিকা সরকারি ওষুধ পরীক্ষাগারে পরীক্ষা করে ছাড়পত্র নেওয়া হবে। এরপর সরকারের চাহিদা অনুযায়ী, এই টিকা ৬৪ জেলার সিভিল সার্জনদের কাছে পৌঁছে দেওয়া হবে।

এর চার দিন আগে ভারতের উপহার হিসেবে ২০ লাখ টিকা পেয়েছে বাংলাদেশ। আর সেরাম থেকে ছয় মাসে ৩ কোটি টিকা কেনার চুক্তি আছে।

অন্যদিকে কোভ্যাক্স থেকে দেশের ২০ শতাংশ মানুষের জন্য টিকা আসার সম্ভাবনা রয়েছে। এর বাইরে আরও টিকা কেনার পরিকল্পনা আছে সরকারের।

এদিকে, ঢাকার যে পাঁচ হাসপাতালে আগামী বুধবার টিকাদান কার্যক্রম শুরু হবে, সেসব হাসপাতালে পূর্বপ্রস্তুতি শুরু হয়েছে বলে জানা গেছে। -ডেস্ক