bpl-dinajpur24(দিনাজপুর২৪.কম) ৪ বল ও ৪ উইকেট হাতে রেখে জয় পেল ঢাকা ডায়নামাইটস। সর্বোচ্চ ৩৪ রান আসে নাসির হোসেনের ব্যাট থেকে। লঙ্কান ওপেনার কুমার সাঙ্গাকারা ৩২ মোসাদ্দেক হোসেন ২৩ ও অধিনায়ক সাকিব আল হাসান করেন ২২ রান। ৯ ম্যাচে ঢাকার এটি ষ্ষ্ঠ জয়। সমান ম্যাচে বরিশাল বুলসের ষ্ষ্ঠ হার।  ব্যক্তিগত ১ রানে উইকেট দেন ঢাকা ডায়নামাইটসের ইনফর্ম ব্যাটসম্যান মেহেদী মারুফ। প্রথম ওভারের তৃতীয় বলে মারুফকে সাজঘরে ফেরান বরিশাল বুলসের বাঁ-হাতি স্পিনার তাইজুল ইসলাম। আর ব্যাট প্রামোশন নিয়ে ওয়ানডাউনে ক্রিজে যান ঢাকা অধিনাযক সাকিব আল হাসান। আগের ম্যাচে কুমিল্লা ভিক্টোরিয়ান্সের বিপক্ষে ৪১ রানের হার না মানা ইনিংস খেলেন সাকিব। চলতি আসরে এটা সাকিবের সর্বোচ্চ রানের ইনিংস। শেষে জয় নিয়ে ম্যাচসেরার পুরস্কারও ওঠে সাকিবের হাতে। মিরপুর শেরেবাংলা মাঠে বরিশাল বুলসের বিপক্ষে পাওয়ার প্লের ৬ ওভার শেষে ঢাকা ডায়নামাইটসের সংগ্রহ দাঁড়ায় ৩৪/১-এ। চলতি বাংলাদেশ প্রিমিয়ার লীগে (বিপিএল) ফের মলিন ব্যাটিং দেখালো বরিশাল বুলস। রোববার ঢাকা ডায়নামাইটসের বিপক্ষে বরিশালের ইনিংস থামে ১৩২ রানে। আগের ম্যাচে খুলনার বিপক্ষে বরিশালের সংগ্রহ ছিল মামুলি ১১৯। জবাবে ৮ উইকেটে জয় কুড়ায় খুলনা টাইটানস। মিরপুর শেরেবাংলা মাঠে ঢাকা ডায়নামাইটসের বিপক্ষে
টস জিতে ব্যাটিং বেছে নেন বরিশাল বুলস অধিনায়ক মুশফিকুর রহীম। প্রমোশন নিয়ে ওপেনিংয়ে সুবিধা করতে পারেননি শাহরিয়ার নাফীস। দলীয় ৬ রানে প্রথম উইকেট খোয়ায় বরিশাল। নাফীস সাজঘরে ফেরেন ব্যক্তিগত ৩ রানে। আর দলীয় ৩৭ রানে তিন উইকেট হারিয়ে টচাপে পড়ে বরিশাল। একে একে সাজঘরে ফিরে যান বরিশালের দুই লঙ্কান ব্যাটসম্যান দিলশান মুনাবিরা ও জীবন মেন্ডিস। উভয়েই উইকেট খোয়ান রানআউটে। চতুর্থ উইকেটে নাদিফ চৌধুরীর সঙ্গে ৪৭ রানের জুটি গড়েন মুশফিকুর রহীম। তবে ব্যক্তিগত ৩৬ রানে মুশফিকের বিদায়ে বড় পুঁজির সম্ভাবনা ফিকে হয় বরিশালের। শেষ পর্যন্ত ১৩২/৬ সংগ্রহ নিয়ে থামে বরিশাল বুলসের ইনিংস। ইনজুরির কারণে এ ম্যাচে খেলতে পারেননি ঢাকা ডায়নামাইটসের ইনফর্ম পেসার মোহাম্মদ শহীদ। ঢাকার বল হাতে একটি করে উইকেট নেন সাকিব আল হাসান, আবু জায়েদ, ডোয়াইন ব্রাভো ও রবি বোপারা। -ডেস্ক