(দিনাজপুর২৪.কম) ডেঙ্গু জ্বরে আক্রান্ত হয়ে মৃতের সংখ্যা প্রতিদিনই বাড়ছে। সরকারি হিসাবে গত দুইদিন ধরে আক্রান্ত হয়ে হাসপাতালে ভর্তির সংখ্যা কিছুটা কমলেও প্রতিদিনই পাওয়া যাচ্ছে মৃত্যুর খবর। গতকাল ঢাকা ও ফরিদপুরে দুইজনের মৃত্যু হয়েছে। সরকারি হিসাবে এ পর্যন্ত মৃতের সংখ্যা ৪০ বলা হলেও বেসরকারি হিসাবে এ সংখ্যা একশ’ ছাড়িয়েছে কয়েকদিন আগেই। আর সরকারি হিসাবেই আক্রান্তের সংখ্যা ৫০ হাজার ছাড়িয়েছে। বেসরকারি হিসাবে এ সংখ্যা কয়েক গুণ। ডেঙ্গুতে আক্রান্ত হয়ে গত ২৪ ঘণ্টায় সারা দেশে ১ হাজার ৪৬০ জন নতুন রোগী হাসপাতালে ভর্তি হয়েছেন বলে স্বাস্থ্য অধিদপ্তর থেকে জানানো হয়েছে। এর মধ্যে ঢাকা শহরে ভর্তি হয়েছেন ৬২১ জন।

এদিকে, ডেঙ্গুতে আক্রান্ত হয়ে ঢাকা মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে মনোয়ারা বেগম (৪৫) নামের এক নারী মারা গেছেন। গতকাল সকাল পৌনে ১১টায় তার মৃত্যু হয়। মনোয়ারা বেগমের বাড়ি কিশোরগঞ্জের মিঠামইনে। তাঁর স্বামীর নাম সাইফুল ইসলাম। তিনি বলেন, বেশ কিছুদিন ধরেই মনোয়ারার জ্বর ছিল। স্থানীয় ভাগলপুর হাসপাতালে তাঁর ডেঙ্গু ধরা পড়ে। সেখানে চিকিৎসা নেয়ার সময় অবস্থার অবনতি হলে গত মঙ্গলবার তাঁকে ঢাকা মেডিকেল কলেজের মেডিসিন বিভাগে ভর্তি করা হয়। পরে তাঁকে আইসিইউতে নেয়া হয়। এদিকে ফরিদপুর মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে চিকিৎসাধীন অবস্থায় ডেঙ্গুতে আক্রান্ত এক কলেজ ছাত্রের মৃত্যু হয়েছে। তার বাড়ি মাগুরায়। হাসপাতালটির সহকারী পরিচালক মোস্তাফিজুর রহমান বুলু জানান, শনিবার সকালে সুমন মোল্লা (১৭) নামের এই শিক্ষার্থীর মৃত্যু হয়। সুমন মাগুরা সদর উপজেলার ধলহরা চাঁদপুর গ্রামের মিজানুর রহমানের ছেলে। সে স্থানীয় শত্রুজিৎপুর কলেজের উচ্চমাধ্যমিক প্রথম বর্ষের ছাত্র ছিল। সুমনকে ১২ই আগস্ট বিকালে এই হাসপাতালে ভর্তি করা হয়। তার মস্তিস্কে সংক্রমণ দেখা দিয়েছিল। এর আগে তাকে মাগুরা সদর হাসপাতালে চিকিৎসা দেয়া হয়। -ডেস্ক