(দিনাজপুর২৪.কম) ডিভোর্স না দিয়েই ক্রিকেটার নাসির হোসেনকে বিয়ে করায় তামিমা তাম্মির সাবেক স্বামী রাকিব হাসানের পাশে দাঁড়িয়েছে ‘এইড ফর মেন ফাউন্ডেশন’ নামের একটি সংগঠন। পুরুষ অধিকার নিয়ে কাজ করা  সংগঠনটির নেতৃবৃন্দ ইতোমধ্যে রাকিবের সঙ্গে সাক্ষাৎ করেছেন। তাকে আইনগত সহায়তা দেওয়ার পাশাপাশি যেকোনো যৌক্তিক সহায়তায় পাশে থাকার আশ্বাস দিয়েছে সংগঠনটি। এইড ফর মেন ফাউন্ডেশনের সাধারণ সম্পাদক সাইফুল ইসলাম নাদিম গণমাধ্যমকে বলেন, রকিব হাসানের স্ত্রী তামিমা তাম্মী তার স্বামীকে ডিভোর্স না দিয়েই ক্রিকেটার নাসিরকে বিয়ে করেছেন। যা আইনত দ-নীয় অপরাধ। এ ইস্যুতে নাসির ও তামিমা প্রভাবশালী হওয়ায় রাকিবকে বিভিন্ন রকমের হুমকি ধমকি দিচ্ছে। এমন পরিস্থিতিতে আমরা রাকিব হাসানের পাশেই আছি।
তিনি আরও বলেন, রোববার সন্ধ্যায় আমরা সংগঠনের পক্ষ থেকে ভিক্টিম রাকিব হাসানের সঙ্গে দেখা করি এবং তার পাশে থাকার আশ্বাস দিয়েছি। গত রোববার ভ্যালেন্টাইনস ডেতে কেবিন ক্রু তামিমা তাম্মিকে বিয়ে করেন নাসির।

কিন্তু এক সপ্তাহ পূর্ণ না হতেই জানা যায় নাসিরপতœীর আগে আরেকটি বিয়ে হয়েছিল। ৮ বছর বয়সী মেয়ে স্বামী রাকিব হাসানকে ফেলে নাসিরকে জীবনসঙ্গী করেন তাম্মি।  রাকিবের দাবি, তামিমা তাকে ডিভোর্স না দিয়েই নাসিরকে বিয়ে করেছেন।
এ ঘটনায় গত বৃহস্পতিবার রাতে উত্তরা পশ্চিম থানায় একটি জিডি করেন রাকিব। উত্তরা পশ্চিম থানার ওসি শাহ মো. আক্তারুজ্জামান ইলিয়াস জিডির বিষয়টি এরই মধ্যে গণমাধ্যমকে নিশ্চত করেছেন।
জিডি সূত্রে জানা গেছে, ২০১১ সালে তামিমা তাম্মিকে বিয়ে করেন রাকিব। দাম্পত্য জীবনে তাদের একটি মেয়ে রয়েছে। এর মধ্যেই তামিমা অন্য এক ছেলের সঙ্গে সম্পর্কে জড়ায়। সেখানে ছয় মাস সংসার করার পর ফিরে আসে। পরে রাকিবের সঙ্গে ক্ষমা চেয়ে পার পায়। কিন্তু গত ১৪ ফেব্রুয়ারি নতুন করে ক্রিকেটার নাসিরের সঙ্গে ছবি ভাইরাল হলে রাকিব জানতে পারেন, তামিমা আবার বিয়ে করেছেন। -ডেস্ক