(দিনাজপুর২৪.কম) আওয়ামী লীগের সভাপতিমণ্ডলীর সদস্য ও সাবেক স্বাস্থ্যমন্ত্রী মোহাম্মদ নাসিমের জীবন সংকটাপন্ন, তিনি ‘ডিপ কোমায়’ আছেন বলে জানিয়েছেন বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিব মেডিকেল বিশ্ববিদ্যালয় (বিএসএমএমইউ) উপাচার্য অধ্যাপক ডাক্তার কনক কান্তি বড়ুয়া।

গতকাল শনিবার কনক কান্তি বড়ুয়া গণমাধ্যমে বলেন, ‘এক কথায় ওনার অবস্থা ভেরি ক্রিটিক্যাল কন্ডিশন, সংকটাপন্ন। আমরা বিকাল ৫টার সময় ওনার শারীরিক অবস্থা দেখেই রিভিউ করছি। ওনার জ্ঞান নাই, তিনি ডিপ কোমায় আছেন।’

এর আগে, গত সোমবার শ্বাসকষ্ট নিয়ে শ্যামলির বেসরকারি বাংলাদেশ স্পেশালাইজড হাসপাতালে ভর্তির পর করোনাভাইরাস পজিটিভ আসে মোহাম্মদ নাসিমের। পরে গতকাল শুক্রবার ভোরে তিনি ব্রেন স্ট্রোক করেন। ঢাকা মেডিকেল কলেজ হাসপাতালের নিউরো সার্জন বিভাগের প্রধান প্রফেসর ডা. রাজিউল হকের নেতৃত্বে বাংলাদেশ স্পেশালাইজড হাসপাতালে তার একটি অপারেশন হয়।

অস্ত্রোপচারের পর নিবিড় পর্যবেক্ষণে থাকা নাসিমের শারীরিক অবস্থা অবনতির দিকে গেলে ১৩ সদস্যের মেডিকেল বোর্ড গঠন করা হয়। ওই বোর্ডে আছেন বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিব মেডিকেল বিশ্ববিদ্যালয়ের উপাচার্য কনক কান্তি বড়ুয়া।

শনিবার সকালে নাসিমের ছেলে তানভীর শাকিল জয় বলেন, ‘আব্বার প্রচুর রক্তক্ষরণ হয়েছিল। আজকে ও আগামীকাল এই দুইটা দিন ওনার জন্য খুবই ভার্নারেবল। আব্বাকে তারা ভেন্টিলেটর সাপোর্ট দিয়ে রেখেছেন। তবে আব্বার ভেন্টিলেটরের দরকার নাই। যেহেতু ওনার এত বড় একটা অপারেশন হয়েছে। তাই উনি যেন সম্পূর্ণ অচেতন থাকেন এ জন্য ভেন্টিলেটরে রাখা হয়েছে।’

জয় আরও বলেন, ‘এখন মূল বিষয় হলো আব্বার ব্লাড প্রেশার আর হার্টরেট যেন নরমাল থাকে এই জন্য চিকিৎসকরা চেষ্টা করে যাচ্ছেন। এভাবে যদি আর দুইদিন কেটে যায় তারপরে হয়তো আব্বা রিকভারি করতে পারবে। সবার কাছে একটু দোয়া চাই। দেশবাসীর কাছে আব্বার জন্য দোয়া চাই।’ -ডেস্ক