(দিনাজপুর২৪.কম) এই সময় ডিজিটাল ডেস্ক: জাল আইনি ডিগ্রি পেশের অভিযোগে আইনের জালে দিল্লির আইনমন্ত্রী। জালিয়াতি ও প্রতারণার অভিযোগে গ্রেপ্তার আম আদমি পার্টি সরকারের মন্ত্রী জীতেন্দ্র সিং তোমর। তাঁকে হজ খাস পুলিশ স্টেশনে জেরা করে পুলিশ। আচমকা দলীয় মন্ত্রীকে গ্রেপ্তার করার তীব্র ক্ষোভ প্রকাশ করেছে আপ। তাদের দাবি, এভাবে দিল্লি সরকারকে ভয় দেখাতে চাইছে কেন্দ্র। সূত্রের খবর, খুশওয়া পুলিশ স্টেশনের DCP(II) ও STF প্রধান রাজেন্দ্র সিং-এর নেতৃত্বে পুলিশের শীর্ষ আধিকারিকরা দীর্ঘক্ষণ জেরা করেন দিল্লির আইনমন্ত্রীকে। এরপর মঙ্গলবার সকাল ১০.৩০টা থেকে ১১টার মধ্যে তাঁকে গ্রেপ্তার করা হয়। তোমরের বিরুদ্ধে অভিযোগ, তিনি দিল্লি বিধানসভা নির্বাচনে লড়ার মনোনয়ন পত্রে তার যে আইনের ডিগ্রির সার্টিফিকেট পেশ করেছিলেন তা জাল। সপ্তাহ দুয়েক আগে মুঙ্গেরের বিশ্ববিদ্যালয়ে এবিষয়ে তদন্ত করতে যায় দিল্লি পুলিশের একটি দল। এর আগে, সেই বিশ্ববিদ্যালয় কর্তৃপক্ষ দিল্লি হাইকোর্টকে জানিয়েছিলেন, তাদের কাছে জীতেন্দ্র সিং তোমরের নামে কোনও রেকর্ড নেই। এমনকী দিল্লির আইনমন্ত্রীর সার্টিফিকেটে যে রোল নম্বরের উল্লেখ রয়েছে, তাও আদপে অন্য একজনের বলে জানান বিশ্ববিদ্যালয় কর্তৃপক্ষ।
দিল্লির আইনমন্ত্রী মিথ্যে ও ভুয়ো সার্টিফিকেট দেখিয়ে আইনজীবী হিসেবে নাম লিখিয়েছেন। এজন্য তার মন্ত্রক কেড়ে নেওয়া উচিত। এই মর্মে দিল্লি হাইকোর্টে দাখিল হওয়া পিটিশনের শুনানিতে বিশ্ববিদ্যলয়ের থেকে তোমর সম্পর্কে তথ্য জানতে চেয়েছিল আদালত।
যদিও আপ নেতা সঞ্জয় সিং-এর দাবি, এই মামলা আদালতের বিচারাধীন। তোমরের ডিগ্রির সত্যতার কথা জানিয়ে আদালতে জবাব পাঠিয়েছে বিশ্ববিদ্যালয়। এরপরেও কোনও নোটিশ না দিয়ে, কিছু না জানিয়ে গ্রেপ্তার করা হল দিল্লির আইনমন্ত্রীকে। ইঔচ সরকার এটা কী করছে? আম আদমি পার্টির আরেক নেতা আশুতোষ অভিযোগ করেছেন, গ্রেফতারের পর জোর করে তোমরকে দিয়ে কিছু নথিতে সই করিয়ে নিয়েছে পুলিশ। তার সঙ্গে জঙ্গিদের মতো ব্যবহার করা হচ্ছে। -(ডেস্ক)
সূত্র: এই সময়।