(দিনাজপুর২৪.কম) মার্কিন সিনেটে আনুষ্ঠানিকভাবে শুরু হয়েছে প্রেসিডেন্ট ডোনাল্ড ট্রাম্পের অভিশংসন প্রক্রিয়া। প্রেসিডেন্ট ট্রাম্পের অভিশংসন বিচার প্রক্রিয়া শুরু করতে সিনেটের ১০০ আইনপ্রণেতা শপথ নিয়েছেন। বৃহস্পতিবার এ শপথ গ্রহণ অনুষ্ঠিত হয় বলে জানিয়েছে বিবিসি।

‘নিরপেক্ষ বিচারের জন্য’ যুক্তরাষ্ট্রের সুপ্রিম কোর্টের প্রধান বিচারপতি জন রবার্টস তাদেরকে শপথ বাক্য পড়ান।

বৃহস্পতিবার প্রতিনিধি পরিষদে পাস হয়ে এই বিচার প্রক্রিয়া এখন কংগ্রেসের উচ্চকক্ষ সিনেটে। সেখানে প্রতিনিধি পরিষদের তদন্ত কমিটির প্রধান অ্যাডাম শিফ ট্রাম্পের বিরুদ্ধে অভিযোগগুলো উচ্চস্বরে পড়ে শুনিয়ে বিচার প্রক্রিয়া শুরু করেন।

অভিশংসনের জন্য মূল বিচারপ্রক্রিয়া শুরু হওয়ায় আগামী কয়েক সপ্তাহের মধ্যে সিনেটররা সিদ্ধান্ত নিবেন, শপথ ভঙ্গের কারণে ট্রাম্পকে দোষী সাব্যস্ত করে পদত্যাগে বাধ্য করা হবে কিনা। ২১ জানুয়ারি শুরু হতে যাচ্ছে এই বিচার।

জুরি হিসেবে শপথ নেওয়া সিনেটরদের মধ্যে ৫৩ জন রিপাবলিকান, ৪৫ জন ডেমোক্রেট ও দুজন স্বতন্ত্র।

সংখ্যাগরিষ্ঠ দলের নেতা মিচ ম্যাককনেল শপথের পর ট্রাম্পের কাছে সমন পাঠানোর উদ্যোগ নেন। শনিবার সন্ধ্যা ৬টার মধ্যে ট্রাম্পকে সমনের জবাব সিনেট বিষয়ক মন্ত্রীর কাছে পাঠাতে হবে।

ট্রাম্পকে দোষী সাব্যস্ত করতে হলে জুরিদের দুই তৃতীয়াংশের ভোট লাগবে। তবে রিপাবলিকান সংখ্যাগরিষ্ঠ সিনেটে তার প্রতি সমর্থনটাই বেশি।

ট্রাম্পের বিরুদ্ধে অভিযোগ, তিনি গত বছর ইউক্রেনের প্রেসিডেন্ট ভ্লাদিমির জেলেনস্কির সঙ্গে ফোনালাপে মার্কিন প্রেসিডেন্ট নির্বাচনে ডেমোক্রেট দলের মনোনয়নপ্রত্যাশী জো বাইডেন ও তার ছেলে হান্টারের বিরুদ্ধে দুর্নীতির তদন্তে চাপ প্রয়োগ করেছিলেন। এমনকি এর জন্য তিনি ইউক্রেনকে সামরিক সহায়তা বন্ধেরও হুমকি দিয়েছিলেন। তবে ট্রাম্প এ অভিযোগ অস্বীকার করে আসছেন। -ডেস্ক