(দিনাজপুর২৪.কম) টেকনাফে বিজিবির সঙ্গে ইয়াবা পাচারকারীদের ‘গুলিবিনিময়’ হয়েছে। এ সময় দুই পাচারকারী গুলিবিদ্ধ হয়ে নিহত হয়েছেন। ঘটনাস্থল থেকে ৫০ হাজার ইয়াবা, ২টি অগ্নেয়াস্ত্র  উদ্ধার করেছে বিজিবি। আজ ভোররাতে টেকনাফের হ্নীলার দক্ষিণ দমদমিয়া এলাকায় এ ঘটনা ঘটে।

বিজিবি সূত্র জানায়, হ্নীলা ইউনিয়নের দক্ষিণ দমদমিয়া এলাকা দিয়ে ইয়াবা পাচারের গোপন সংবাদ পেয়ে বিজিবির একটি বিশেষ টহলদল সেখানে কৌশলগত অবস্থান নেয়। একপর্যায়ে ইয়াবা পাচারকারীদের চারদিক থেকে ঘিরে আত্মসমর্পণের জন্য বলা হয়। কিন্তু তারা আত্মসমর্পণ না করে অতর্কিত এলোপাতাড়ি গুলি চালাতে থাকে। এ সময় বিজিবি’র তিনজন সদস্য আহত হন।

নিহতদের মানিব্যাগের ছবিতে মো. জামাল (২৭) ও  মোহাম্মদ ইউনুছ (২১) নাম পাওয়া গেলেও এ রিপোর্ট লেখা পর্যন্ত পিতার নাম ও ঠিকানা পাওয়া যায়নি।

এছাড়া ঘটনাস্থল থেকে দেড় কোটি টাকা মূল্যে ৫০ হাজার পিস ইয়াবা, দেশীয় তৈরী ২টি বন্দুক, ৩ টি তাজা কার্তুজ, ২ টি ধারালো কিরিচ উদ্ধার করতে সক্ষম হয় বিজিবি।

ঘটনার সত্যতা নিশ্চিত করে টেকনাফ ২ বিজিবি অধিনায়ক  লে. কর্নেল মো. ফয়সাল হাসান খান জানান, টেকনাফ সীমান্ত দিয়ে মাদক পাচারকারী চক্র ফের বেপরোয়া হওয়ার চেষ্টা করছে। মাদক নির্মূলে সরকার জিরো টলারেন্স। কোন অবস্থায় মাদক পাচারে জড়িত অপরাধীদের রেহাই নেই।

তাদের অপচেষ্টা প্রতিরোধ করার জন্য সীমান্ত প্রহরী বিজিবি জওয়ানরা সদা প্রস্তুত রয়েছে। সীমান্তে মাদক পাচারকারী ও  চোরাচালান রোধে বিজিবির অভিযান অব্যাহত থাকবে বলেও জানান এই বিজিবি কর্মকর্তা। -ডেস্ক