(দিনাজপুর২৪.কম) কক্সবাজারের টেকনাফ উপজেলায় এবার পান বাগানের ভেতর থেকে ১২ লাখ ১০ হাজার পিস ইয়াবা বড়ি উদ্ধার করেছে বর্ডার গার্ড বাংলাদেশের (বিজিবি) সদস্যরা। তবে এসময় কাউকে আটক করতে পারেনি বিজিবি। আজ শুক্রবার সকাল ১০ টার দিকে সাবরাং ইউনিয়নের সমুদ্র সৈকত কাটাবনিয়ার সংলগ্ন খুরের মুখ এলাকা থেকে এসব ইয়াবা বড়ি উদ্ধার করা হয়। এটি টেকনাফে এ যাবত কালে ইয়াবার সবচেয়ে বড় চালান বলে দাবি করেছে বিজিবি।

টেকনাফ-২ বিজিবি ব্যাটালিয়নের অধিনায়ক লেফটেন্যান্ট কর্নেল আবুজার আল জাহিদ জানান, মিয়ানমার থেকে নৌপথে টেকনাফ সমুদ্র সৈকত দিয়ে ইয়াবার একটি বড় চালান প্রবেশের খবর পেয়ে তার নেতৃত্বে কাটাবনিয়ার খুরের মুখ এলাকার পান বাগানে অভিযান পরিচালনা করা হয়। এ সময় সেখানে লতাপাতায় লুকিয়া রাখা ৪টি বস্তা উদ্ধার করা হয়। ওই বস্তা থেকে ১২ লাখ ১০ হাজার পিস ইয়াবা বড়ি উদ্ধার করা হয়। এ ঘটনায় কেউ আটক হয়নি। উদ্ধার ইয়াবার দাম ৩৬ কোটি ৩০ লাখ টাকা।

তিনি আরও বলেন, ‘গত এক সপ্তাহ ধরে মিয়ানমার থেকে ইয়াবার বড় চালান টেকনাফে প্রবেশ করবে এমন গোপন সংবাদ পেয়ে বিজিবির একটি বিশেষ টিম ওই এলাকার অবস্থান করে। এটি বিজিবির সর্ববৃহৎ চালান। এর আগে ৯ লাখ ৮০ হাজার ইয়াবা উদ্ধার করা হয়েছিল। ইয়াবার এ চালানটি খালাস করে দেশের বিভিন্ন স্থানে পাচারের উদ্দেশ্য ছিল।’

লেফটেন্যান্ট কর্নেল আবুজার আল জাহিদ বলেন, কয়েকটি বড় চালান নৌপথে আটকের পর কিছুদিন নিষ্ক্রিয় ছিল মাদক পাচারকারীরা। এখন আবার সক্রিয় হয়ে সাগার পথে ইয়াবা পাচার করছে তারা। উদ্ধার ইয়াবাগুলো ব্যাটালিয়ন সদর দপ্তরে জমা রাখা হয়েছে। পরে উদ্ধর্তন কর্মকর্তাদের সামনে ধ্বংস করা হবে বলে জানান বিজিবির ওই কর্মকর্তা। -ডেস্ক