সংগৃহীত

(দিনাজপুর২৪.কম) জনপ্রিয় নারী টিকটক তারকার সঙ্গে নতুন এক বিতর্কে জড়িয়ে পড়েছেন পাকিস্তানের রেলমন্ত্রী শেখ রশিদ।

দেশটির সোশ্যাল মিডিয়ায় এখন রেলমন্ত্রীকে নিয়ে সমালোচনায় মুখর নেটিজেনরা।

গতকাল শনিবার ইন্টারনেটে রেলমন্ত্রী শেখ রশিদের একটি ভিডিওচ্যাট ফাঁস হয় যেখানে দেখা গেছে, পাক সেনশেসন টিকটক তারকা হারিম শাহের সঙ্গে কথা বলছেন তিনি।

ভিডিওতে দেখা যায়, হারিম শাহ বলছেন, আমি কি আপনার কোনো গোপন রহস্য ফাঁস করেছি? তা হলে আমার সঙ্গে কথা বলছেন না কেন?’

প্রতিউত্তরে মন্ত্রী বলেন, তোমার যা ইচ্ছে করতে পারো।

টিকটক তারকা এরপর বলেন, ‘আপনি যে আমায় অশ্লীল ভিডিও পাঠাতেন সেগুলোর কথা কি ভুলে গেছেন?’

সে প্রশ্নের জবাব না দিয়েই কলটি কেটে দেন মন্ত্রী।

তাদের এই কথপোকথনের দৃশ্য ইন্টারনেটে পোস্ট হতেই তা ঝড়ের গতিতে ভাইরাল হয়ে পড়ে।

ভিডিওটি ঘিরে মন্ত্রীকে ঘিরে তুমুল সমালোচনাসহ নানা প্রশ্ন তুলছেন পাক নেটিজেনরা।

কি সেই গোপন রহস্য আর টিকটক তারকা হরিমের সঙ্গে কি সম্পর্ক রয়েছে মন্ত্রী শেখ রশিদের সে জল্পনায় ব্যস্ত এখন পাকিস্তানিরা।

এমন সব প্রশ্নের তোপের মুখে মন্ত্রী শেখ রশিদ মুখ না খুললেও এ বিষয়ে হারিম শাহ টুইটারে মন্ত্রীর বিরুদ্ধে একই অভিযোগ করেছেন।

তার অভিযোগ, পাক এই মন্ত্রী তাকে সবসময় আপত্তিকর ছবি পাঠাতেন।

তবে ঘটনা এখানেই শেষ হয়ে যায়নি। এ বিষয়ে হারিম শাহ আরও একটি টুইট করে বিস্ফোরক তথ্য দেন।

শুধু ক্ষমতাসীন রেলমন্ত্রীই নন; ইমরান খানের দলের আরো অনেক মন্ত্রীদের সঙ্গে তার সম্পর্ক রয়েছে বলে ইঙ্গিত দেন হারিম শাহ।

তিনি লেখেন, ‘আমাকে পিটিআইয়ের নেতারা নিয়মিত হুমকি দিয়ে যাচ্ছেন। তারা অবশ্যই চাচ্ছেন না আরও মন্ত্রীদের কাহিনি ফাঁস হয়ে যাক। সেই ভয় থেকে তারা আমাকে হুমকি দিয়ে যাচ্ছেন। তাই আমি আমার সোশ্যাল মিডিয়া অ্যাকাউন্টটি বন্ধ করে দিচ্ছি।’

এরপর টুইটটিও ডিলিট করে দেন হারিম শাহ।

উল্লেখ্য, টিকটক তারকা হারিম শাহকে পাকিস্তানে বেশ কিছু রাজনৈতিক নেতার সঙ্গে সেলফি তুলতে দেখা গেছে। সেসব ছবি ফেসবুক ও টুইটারে ভাইরাল হয়েছে। দেশটির প্রধানমন্ত্রী ইমরান খানের চেয়ারে বসেও সেলফি তুলেছিলেন হারিম শাহ। সে ছবিও পাক মিডিয়ায় প্রকাশ হয়েছে। -ডেস্ক

ফাঁস হওয়া ভিডিওটি দেখুন-