টাইগারদের অনুশীলন ক্যাম্প। ছবি : বিসিবি।

(দিনাজপুর২৪.কম) বাংলাদেশ জাতীয় ক্রিকেট দলের শ্রীলঙ্কা সফরকে কেন্দ করে গঠিত ক্যাম্পের এক ক্রিকেটারের করোনাভাইরাস পজিটিভ হয়েছে। তিনি হলেন টেস্ট দলের নিয়মিত মুখ পেসার আবু জায়েদ রাহী। বাংলাদেশ ক্রিকেট বোর্ডের (বিসিবি) চিকিৎসক দেবাশীষ চৌধুরী রাহীর করোনা শনাক্ত হওয়ার বিষয়টি নিশ্চিত করেছেন।

দেবাশীষ চৌধুরী বলেন, ‘পেসার আবু জায়েদ রাহীর করোনা পজেটিভ এসেছে। তাকে আইসোলেশনে রেখে নীতিমালা অনুযায়ী চিকিৎসা দেওয়া হবে।‘

এর আগে ২৭ ক্রিকেটারের মধ্যে দুজন ‘বর্ডারলাইন নেগেটিভ’ শনাক্ত হয়েছিল। তাদের সহচযার্যে থাকা ১১ জনকে আইসোলেশনে রাখা হয়।  তারা হলেন, সাইফ হাসান, হাসান মাহমুদ, সৈয়দ খালেদ আহমেদ, আবু জায়েদ রাহী, শফিউল ইসলাম, মোহাম্মদ সাইফউদ্দিন, এবাদত হোসেন, নাঈম হাসান, মোহাম্মদ মিঠুন, মোসাদ্দেক হোসেন সৈকত ও নাজমুল হোসেন শান্ত। এই ১১ জন থেকে রাহীর করোনা শনাক্ত হয়।

করোনা ভাইরাসের কারণে চার মাস ঘরবন্দী ছিলেন ক্রিকেটাররা। জুলাই থেকে আবারো ক্রিকেট চর্চা শুরু হয় দেশে। বিসিবির তত্তাবধানে জাতীয় দলের কয়েকজন ক্রিকেটার একক অনুশীলন শুরু করেন। কোরবানীর ঈদের পর সে সংখ্যাটা বাড়ে। এরই মাঝে শ্রীলঙ্কা সফর নিশ্চিত হলে বিসিবির ব্যস্ততা বেড়ে যায়। শ্রীলঙ্কা সফর সামনে রেখে পরিকল্পনা সাঁজাতে থাকে বোর্ড। যদিও সম্প্রতি হুমকির মুখে পড়েছে বাংলাদেশের শ্রীলঙ্কা সফর।

দ্বীপরাষ্ট্রে পৌঁঁছানোর পর টাইগারদের ১৪ দিন কোয়ারেন্টিনে থাকতে হবে এমনটাই চাইছে ক্রিকেট শ্রীলঙ্কা। এটা সে দেশের স্বাস্থ্যমন্ত্রনালয় থেকে বলা হয়েছে । কিন্তু বিসিবি তাতে রাজি নয়। আর এ নিয়েই সমস্যা বেধেছে। যদিও এসএলসি স্বাস্থ্য মন্ত্রনালয়কে কোয়ারেন্টিন শিথিল করার জন্য অনুরোধ করেছে। ধারণা করা হচ্ছে, ইতিবাচক একটা সিদ্ধান্তই আসবে এবং নির্ধারিত সময়েই টাইগাররা শ্রীলঙ্কার উদ্দ্যেশে উড়াল দেবেন। -ডেস্ক