(দিনাজপুর২৪.কম) গাজীপুরের টঙ্গীতে দোকান কর্মচারী এক শিশুকে মাথায় আঘাত করে হত্যা করা হয়েছে; এ ঘটনায় মালিকসহ দুজনকে আটক করেছে পুলিশ।
আটককৃতরা হলেন- দোকান মালিক আহসান ও নিহত তমালের সমবয়সী এক বন্ধু।
টঙ্গী থানার উপপরিদর্শক (এসআই) মো. ছিদ্দিকুর রহমান জানান, বুধবার রাতে টঙ্গীর উত্তর আউচপাড়া এলাকায় হত্যাকাণ্ডের এ ঘটনা ঘটে। নিহত তমালের (১৪) মাথায় প্রচণ্ড আঘাতের চিহ্ন রয়েছে।
তমাল আউচপাড়া এলাকায় আহসান উল্লাহর (৩২) টাইলসের দোকানে কাজ করত। সে শেরপুর সদর উপজেলার তিরশা গ্রামের সোহরাব আলীর ছেলে।
তমালের ভাই আপনবাবু বলেন, তারা ওই এলাকার বাদশা মিয়ার বাড়িতে ভাড়া থাকেন। তমাল প্রতিদিন রাত ১০টা-১১টার মধ্যে বাসায় ফিরত। বুধবার ১১টায়ও না ফেরায় তার মোবাইলে ফোন করি। কিন্তু সে রিসিভ করছিল না। রাত সোয়া ১১টার দিকে তমালের এক বন্ধু ও দোকান মালিক আহসান খবর দেন, একটি নির্মাণাধীন ভবনের এক কোণায় অচেতন অবস্থায় তমাল পড়ে আছে।
পরে তাকে টঙ্গী সরকারি হাসপাতালে নিলে চিকিৎসক মৃত ঘোষণা করেন বলে জানান তিনি।
রাতেই তমালের মা হুজুরা বেগম আহসানকে প্রধান করে অজ্ঞাত আরও ১০-১২ জনের বিরুদ্ধে লিখিত অভিযোগ দায়ের করেন।
মামলা প্রক্রিয়াধীন রয়েছে বলে জানিয়েছেন এসআই ছিদ্দিকুর রহমান। -ডেস্ক