(দিনাজপুর২৪.কম) দক্ষিণ এশিয়ার শ্রেষ্ঠত্বের মুকুট নিয়ে ভুটান গেছে কিশোরী ফুটবলাররা। তাদের লক্ষ্য এবার ভুটান জয়। মাত্র ৮ মাস আগে ঢাকার কমলাপুর বীরশ্রেষ্ঠ মোহাম্মদ মোস্তফা কামাল স্টেডিয়ামে সাফ অনূর্ধ্ব-১৫ বালিকা ফুটবলে চ্যাম্পিয়ন হয়েছিল বাংলাদেশ। ফাইনালে বাংলাদেশের কিশোরীরা হারিয়েছিল ভারতকে। এখন সেই শ্রেষ্ঠত্ব ধরে রাখার লক্ষ্য নিয়ে ভুটান গেছে গোলাম রব্বানী ছোটনের শিষ্যরা। আজ থিম্পুর চালিংমিথাং স্টেডিয়ামে শুরু হবে ৬ জাতির এ টুর্নামেন্ট। ঘরের মাঠে জেতা শিরোপা ধরে রাখার মিশন শুরু হবে পাকিস্তানের বিরুদ্ধে ম্যাচ দিয়ে। আজ সন্ধ্যা ৭টায় মুখোমুখি হবে বাংলাদেশ-পাকিস্তান। দুই দেশ সিনিয়র পর্যায়ে একাধিকবার মুখোমুখি হলেও কিশোরীদের দেখা এবারই প্রথম।
দক্ষিণ এশিয়ায় নারী ফুটবলে জাতীয় দল পর্যায়ে ভারতের মোটামুটি একচ্ছত্র আধিপত্য থাকলেও বয়সভিত্তিক ফুটবলে বাংলাদেশ আশার আলো জ্বালিয়ে যাচ্ছে। যে কারণে মারিয়া মান্ডাদের উপর আত্মবিশ্বাসও বেড়ে গেছে দেশের মানুষের। গতকাল পাকিস্তান ম্যাচের আগে শেষ মুহূর্তেও প্রস্তুতি শেষে কোচ গোলাম রব্বানী ছোটন বলেন, ‘সব দলই চ্যাম্পিয়ন হতে ভুটান এসেছে। তবে আমরা সামর্থ্য অনুযায়ী খেলতে পারলে শিরোপা ধরে রাখা সম্ভব।’ মারিয়াদের নিয়ে কোচের ভয় ছিল, ভুটানের আবহাওয়া। থিম্পুতে বেশ ঠাণ্ডা। তাপমাত্রা ১২ থেকে ১৪ ডিগ্রি সেলসিয়াস। থেমে থেমে বৃষ্টিও হচ্ছে। এর মধ্যে মানিয়েও নিয়েছেন মনিকা, তহুরারা। পাকিস্তান ম্যাচের আগে অধিনায়ক মারিয়া মান্ডা বলেন, এখানকার আবহাওয়াটা কেমন জানি। এই গরম আবার এই ঠাণ্ডা। মাঝে মাঝে বৃষ্টিও হচ্ছে। এটা সমস্যা ছাড়া এখানে আমরা ভালোই আছি। দলও ফুরফুরে মেজাজে আছে। আশা করছি আজ পাকিস্তানকে বড় ব্যবধানে হারিয়েই টুর্নামেন্ট শুরু করতে পারবো আমরা। দলটির ফরোয়ার্ড তহুরা খাতুনও বিশ্বাস করেন টুর্নামেন্টে চ্যাম্পিয়ন হওয়ার সামর্থ্য তাদের রয়েছে। এরিমধ্যে আমরা দেশে-বিদেশ মিলিয়ে কয়েকটি টুর্নামেন্টে চ্যাম্পিয়ন হয়েছি। এখানে আবহাওয়া কোনো সমস্যা হবে না।
গত ডিসেম্বরে ঢাকায় অনুষ্ঠিত সর্বশেষ আসরে নেপালকে ৬-০ হারিয়ে টুর্নামেন্ট শুরু করে বাংলাদেশ। পরের ম্যাচে ভুটানকে ৩-০ গোলে এবং একই ব্যবধানে ভারতকে হারিয়ে ফাইনালে জায়গা করে নেয় স্বাগতিকরা। ফাইনালে ভারতকে ১-০ গোলে হারিয়ে শিরোপা জেতে মাবিয়া-তহুরারা। ছোটনের বিশ্বাস গত আসরের পর গেল আট মাসে আরো পরিপক্ব ও আরো শক্তিশালী হয়েছে বাংলাদেশ। মাঝে হংকংয়ে অনুষ্ঠিত চারজাতি টুর্নামেন্টে অভিজ্ঞতা অর্জন ছিলো বাড়তি প্রাপ্তি। প্রথম ম্যাচের প্রতিপক্ষ নিয়ে ছোটন বলেন, আমরা বয়সভিত্তিক ফুটবলে পাকিস্তানের সঙ্গে খেলিনি। তাই ওদের শক্তিমত্তা সম্পর্কে খুব একটা ধারণা নেই। তবে আমি আমার দল নিয়ে আত্মবিশ্বাসী। আমার বিশ্বাস আমার মেয়েদের সামনে কোনো দলই কুলিয়ে উঠতে পারবে না। এদিকে আট টুর্নামেন্টের উদ্বোধনী ম্যাচে শ্রীলঙ্কার মুখোমুখি হবে গতবারের রানার্সআপ ভারত।
বাংলাদেশ দল
মাহমুদা আখতার, রুপনা চাকমা, রুপা আক্তার, আঁখি খাতুন, আনাই মগিনি, নাজমা, নিলুফা ইয়াসমিন নীলা, ইলামনি, শাহেদা আক্তার রিপা, আনুচিং মগিনি, রেহানা আক্তার, মারিয়া মান্দা, মনিকা চাকমা, লাবনী আক্তার, তহুরা খাতুন, মুন্নী আক্তার, শামসুন্নাহার, সোহাগী কিসকু, ঋতুপর্ণা, সাজেদা, শামসুন্নাহার জুনিয়র, রোজিনা, নওসুন।-ডেস্ক