(দিনাজপুর২৪.কম) রাজধানীর নিউ ইস্কাটনে জোড়া খুনের মামলায় সংসদ সদস্যের ছেলে বখতিয়ার আলম রনির জামিন আবেদন নামঞ্জুর করেছে আদালত। আজ মঙ্গলবার ঢাকার মহানগর হাকিম আমিনুল হক শুনানি শেষে এ আদেশ দেন। আটকের পর ৪ দিনের রিমান্ড শেষে শনিবার রনিকে কারাগারে পাঠান মহানগর হাকিম আসাদুজ্জামান নূর। ওইদিন তার পক্ষে জামিনের আবেদন করা হলে শুনানির জন্য ১৬ জুন দিন ঠিক করে দেন বিচারক। বখতিয়ার আলমের আইনজীবী শওকত ওসমান আদালতকে বলেন, আসামির নাম এজাহারে নেই। তাকে অহেতুক হয়রানির জন্য গ্রেফতার করা হয়েছে। ঘটনার দিন বখতিয়ার আলম তার সন্তান ও মাকে নিয়ে হাসপাতালে ছিলেন। ওই দিন তিনি রাস্তায় বের হননি। এ ছাড়া যে হত্যার ঘটনা ঘটেছে তা পরিকল্পিত ছিল না। আসামি গুরুতর অসুস্থ, তার মা একজন সংসদ সদস্য। তাই জামিন দিলে তার পালিয়ে যাওয়ার সম্ভাবনা নেই। এ কারণে উন্নত চিকিৎসার স্বার্থে বখতিয়ার আলমের পক্ষে তিনি অন্তর্বর্তীকালীন জামিন চান।
রাষ্ট্রপক্ষ এর বিরোধিতা করে আদালতকে বলেন, এ মামলায় আসামি ইমরান ফকির আদালতে স্বীকারোক্তিমূলক জবানবন্দি দিয়ে রনির নাম প্রকাশ করেছেন। ঘটনার দিন জব্দকৃত প্রাডো গাড়ি থেকে বখতিয়ার আলম গুলি ছুড়েছিলেন। সেই গুলিতে দুজন মারা যায়। ঘটনায় ব্যবহৃত পিস্তল ও গুলি জব্দ করা হয়েছে। তাই জামিন দিলে তদন্তে বিঘ্ন ঘটনার সম্ভাবনা আছে। এরপর শুনানি শেষে আদালত বখতিয়ার আলমের জামিন আবেদন নামঞ্জুর করে দেন আদালত।
গত ১৩ এপ্রিল গভীর রাতে রাজধানীর নিউ ইস্কাটন এলাকায় নেশাগ্রস্ত অবস্থায় গাড়ি থেকে গুলি ছোড়েন আওয়ামী লীগের সংসদ সদস্য খানের ছেলে বখতিয়ার। ওই গুলিতে অটোরিকশাচালক ইয়াকুব আলী ও রিকশাচালক আবদুল হাকিম নিহত হন। হাকিমের মা মনোয়ারা বেগম ১৫ এপ্রিল এ ঘটনায় রমনা থানায় হত্যা মামলা করেন। ঢাকা মহানগর গোয়েন্দা পুলিশের এসআই দীপক কুমার দাস মামলাটি তদন্ত করছেন। মামলা করার পর পুলিশ গত ৩১ মে বখতিয়ার ও তার গাড়িচালক ইমরান ফকিরকে গ্রেফতার করে। -(ডেস্ক)