(দিনাজপুর২৪.কম) ডিজিটাল বাংলাদেশ গঠনে সুস্থ মানব সম্পদ তৈরীর জন্য অবৈধ মাদক ও বাল্য বিবাহ প্রতিরোধকল্পে দিনাজপুর জেলা তথ্য অফিস ও মাদকদ্রব্য নিয়ন্ত্রণ অধিদপ্তর এর আয়োজনে চিরিরবন্দর উপজেলার রানীরবন্দর হাটে ২৬ আগষ্ট, বুধবার, বিকাল ৫টায় গণসচেতনতামূলক মতবিনিময় সভা অনুষ্ঠিত হয়। জেলা প্রশাসক দিনাজপুর মীর খায়রুল আলম মত বিনিময় সভায় প্রধান অতিথির আসন অলংকৃত করেন। সিনিয়র তথ্য অফিসার দিনাজপুর আবুল কালাম মোহাম্মদ শামসুদ্দিন এর সভাপতিত্বে অনুষ্ঠিত মত বিনিময় সভায় বিশেষ অতিথি হিসেবে বক্তব্য রাখেন চিরিরবন্দর উপজেলা চেয়ারম্যান মোঃ আফতাব উদ্দিন মোল্লা, চিরিরবন্দর উপজেলা নির্বাহী অফিসার মোঃ ফিরোজ মাহমুদ, চিরিরবন্দর থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা মোঃ আনিসুর রহমান, স্বাগত বক্তব্য রাখেন সহকারী পরিচালক মাদকদ্রব্য নিয়ন্ত্রন অধিদপ্তর মোহাম্মদ শহিদুল মান্নাফ কবীর। মতবিনিময় সভায়  আরো বক্তব্য রাখেন চিরিরবন্দর থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (তদন্ত) মোঃ বেলাল হোসেন, ইছামতি ডিগ্রী কলেজের অধ্যক্ষ মোঃ শহিদুল ইসলাম, রানীরবন্দর শান্তি সংঘ (রাশাস) এর নির্বাহী পরিচালক মোঃ ফজলুর রহমান।
মতবিনিময় সভার শুরুতে জাতির পিতা বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমানের ৪০তম শাহাদাত বার্ষিকী উপলক্ষে জাতির পিতার প্রতি বিনম্র শ্রদ্ধা জ্ঞাপন করে ১ মিনিট নিরবতা পালন করা হয়। মতবিনিময় সভা শেষে অবৈধ মাদক ও বাল্য বিবাহ প্রতিরোধ বিষয়ক চলচ্চিত্র ঘুন, চোখ মেলে চাও, জোহরা, অর্ধেক আকাশ, বাবা আমি বউ হবো না এবং বঙ্গবন্ধুর জীবন ও কর্মের উপর নির্মিত চলচ্চিত্র ‘বঙ্গবন্ধু বাংলাদেশ’ প্রদর্শন করা হয়।
প্রধান অতিথির বক্তব্যে জেলা প্রশাসক বলেন, হাজার বছরের শ্রেষ্ঠ বাঙ্গালী জাতির পিতা বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমান যে সোনার বাংলা গড়তে চেয়েছিলেন এবং মাননীয় প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা ডিজিটাল বাংলাদেশ বাস্তবায়নের মাধ্যমে ২০২১ সালে যে মধ্যম আয়ের বাংলাদেশ গড়তে চান-তার জন্য সুস্থ ও মেধাবী মানব সম্পদ প্রয়োজন। এক্ষেত্রে প্রধান অন্তরায় অবৈধ মাদকের বিস্তার, বাল্যবিবাহ এবং সন্ত্রাস। অবৈধ মাদক, বাল্যবিবাহ ও সন্ত্রাস প্রতিরোধে সচেতনতার পাশাপাশি সামাজিক আন্দোলন গড়ে তোলা প্রয়োজন। তিনি মাদক ও বাল্যবিবাহ প্রতিরোধের মাধ্যমে একটি সুস্থ সমাজ, মেধাবী ভবিষ্যৎ প্রজন্ম ও উপযুক্ত পরিবেশ গঠনে ভূমিকা রাখার জন্য দল, মত, বয়স, লিঙ্গ নির্বিশেষে সকলকে এগিয়ে আসার আহবান জানান। -প্রেস বিজ্ঞপ্তি