(দিনাজপুর২৪.কম) আইনমন্ত্রী আনিসুল হক বলেছেন, জিয়া অরফানেজ ট্রাস্ট দুর্নীতি মামলায় সাজাপ্রাপ্ত কারাবন্দী বিএনপি চেয়ারপারসন বেগম খালেদা জিয়া জেলকোডের থাকা বিধি-বিধানের চেয়ে বেশি সুযোগ-সুবিধা পাচ্ছেন। জেলকোডের বাইরে গিয়ে খালেদা জিয়ার চিকিৎসা সম্ভব নয়। বুধবার (২০ জুন) রাজধানীর বিচার প্রশাসন প্রশিক্ষণ ইনস্টিটিউটে সহকারী জজদের এক প্রশিক্ষণ কোর্সের উদ্বোধন শেষে সাংবাদিকদের প্রশ্নের জবাবে তিনি এসব কথা বলেন।এর আগে সহকারী জজদের ৩৭তম বুনিয়াদি প্রশিক্ষণ কোর্সের উদ্বোধন করেন আইনমন্ত্রী।বিচার প্রশাসন প্রশিক্ষণ ইনস্টিটিউটের মহাপরিচালক বিচারপতি খোন্দকার মূসা খালেদের সভাপতিত্বে বক্তব্য দেন আইন সচিব আবু সালেহ শেখ মো. জহিরুল হক।

চিকিৎসার জন্য খালেদা জিয়াকে ইউনাইটেড হাসপাতালে নিতে কোনো আইনি বাধা আছে কিনা এক সাংবাদিকের এমন প্রশ্নে আইনমন্ত্রী বলেন, আমরা আইনের মাধ্যমে এগোচ্ছি। তার কারণ হচ্ছে যে, যখন আদালত কাউকে শাস্তি দেন এবং তিনি কারাগারে যান তখন কারাগারের যাওয়ার সঙ্গে সঙ্গে জেলকোড অনুযায়ী আইনটা প্রযোজ্য হয়ে যায়। জেলকোডে যা আছে তার থেকে বেশি কিন্তু খালেদা জিয়া এখনই পাচ্ছেন। সেক্ষেত্রে জেলকোডের ব্যত্যয় ঘটানো বা আইনের ব্যত্যয় ঘটানোর কোন কারণ এখনও উদ্ভব হয়নি। আইনের ব্যত্যয় ঘটিয়ে কিছু করার ক্ষমতা সরকারের নেই।

আপিল বিভাগে বিচারক নিয়োগ নিয়ে আরেক প্রশ্নের জবাবে তিনি বলেন, আপিল বিভাগের বিচারক সংকট আছে এ কথার সঙ্গে আমি একমত নই। এর আগে সাতজন বিচারক ছিলেন। বহু বছর পাচঁজন বিচারক দিয়ে আপিল বিভাগ চলেছে। তার থেকে এখন মামলা বেড়েছে কথাটা ঠিক। বর্তমান বিচারক যারা আছেন তারা কিন্তু বহুদিন যাবৎ চালিয়ে যাচ্ছেন, মামলার সংখ্যা কিন্তু কমে আসছে। একেবারেই সংকট আছে সেক্ষেত্রে আমি দ্বিমত পোষণ করি। তারপরেও আপিল বিভাগে শিগগিরই নিয়োগ দেওয়া হবে বলে জানান আইনমন্ত্রী। -ডেস্ক