(দিনাজপুর২৪.কম) মেয়েটা উড়তে চায়। কিন্তু প্লেনে ওড়ার সামর্থ্য নেই। নিজের হাতে বানিয়ে নিল একটা ডানা। উড়ল প্লেনের থেকেও ওপরে। ওই যে ‘‌ইচ্ছা থাকলে উপায় হয়’। এটা তো গল্প। কিন্তু সেটা সত্যি করে দেখাল ১১ বছরের এক বালিকা। ‌

ফিলিপাইনের অ্যাথলেট রিয়া বুলোস। ফিলিপাইনসের স্কুলছাত্রী রিয়া বুলোস তার স্কুলের ক্রীড়া প্রতিযোগিতায় ৪০০, ৮০০ এবং ১৫০০ মিটার দৌড় প্রতিযোগিতায় জিতে সোনার পদক জিতে নিল। কিন্তু অবাক করা ব্যাপার এটাই যে তার পায়ে কোনোরকম আসল জুতো ছিল না পায়ে ছিল ব্যান্ডেজ দিয়ে তৈরি জুতো।

নিজের প্রতিযোগিতার শেষে যখন রিয়া মাঠে বসে অন্যান্য প্রতিযোগিতা দেখছিল সেই সময় হঠাৎ নজরে আসে রিয়ার পায়ের ব্যান্ডেজ দিয়ে বানানো জুতো তাতে সবুজ রং এর কালিতে ‘নাইকি’ ব্রান্ডের চিহ্ন আঁকা রয়েছে।

রিয়ার এই দুর্দান্ত পারফরম্যান্সে খুবই খুশি হয়েছেন রিয়ার ক্রীড়া শিক্ষক। তিনি জানিয়েছেন রিয়া খুবই পরিশ্রমী একজন ক্রীড়াবিদ। কঠোর পরিশ্রম করেই রিয়া আজ এই সাফল্য অর্জন করছে। এছাড়াও তিনি জানিয়েছেন রিয়া ছাড়াও আরও বেশ কয়েকজন প্রতিভাবান ক্রীড়াবিদ তাদের কাছে রয়েছে কিন্তু জুতো সহ অন্যান্য স্পোর্টস কিটের জন্য তারা ভালো ভাবে প্র্যাকটিস করতে পারে না।

সোশ্যাল মিডিয়ায় রিয়াকে নিয়ে লেখালেখি হওয়ার পরেই বহু মানুষ রিয়াকে স্পন্সর করতে চায়। ‘‌আলাস্কা এসেস’ সংস্থার জেফ ক্যারিয়াসো সোশ্যাল মিডিয়ায় পোস্ট করে জানান, তিনি রিয়াকে স্পন্সর করতে চান, কিন্তু যোগাযোগ করার জন্য কারওর সাহায্য চাই। ‌রিয়ার এক পরিচিত সেই সাহায্য করার ক’‌দিন পর রিয়ার একটি ছবি দেখা যায় সোশ্যাল মিডিয়ায়।

স্থানীয় মলের একটি জুতোর দোকানে সে নতুন জুতা পরে দেখছে। আর তাকে ব্যান্ডেজ দিয়ে জুতো বানাতে হবে না। সে মনের আনন্দে ছুটতে পারবে। -ডেস্ক