(দিনাজপুর২৪.কম) দিশা পাটানি। এ সময়ে বলিউডে যাকে নিয়ে চলছে তুমুল আলোচনা। প্রথম দিনেই বাজিমাত করেছে তার অভিনীত ‘বাঘি ২’ ছবিটি। এ বছর মুক্তিপ্রাপ্ত ছবিগুলির মধ্যে প্রথম দিনের বক্স অফিস কালেকশন এখনও পর্যন্ত সব থেকে বেশি ‘বাঘি ২’-র। এমনকী, ‘পদ্মাবৎ’-কেও ছাপিয়ে গিয়েছে এই ছবি। ছবিতে টাইগার শ্রফের নায়িকা দিশা পাটানি, যিনি এর আগে ধোনির বায়োপিকে আত্মপ্রকাশেই বাজিমাত করেছিলেন।

এই মুহূর্তে চেনামুখ হলেও, বলিউডে পা রাখার সময়টা বেশ কঠিন ছিল দিশার। কেরিয়ার গড়ার জন্য যখন মুম্বইয়ে এসেছিলেন, সঙ্গে ছিল মাত্র ৫০০ রুপি। এক সর্বভারতীয় সংবাদমাধ্যমের কাছে এমনটাই জানিয়েছেন দিশা পাটানি। তার কথায়, আমার ফিলমি ব্যাকগ্রাউন্ড নেই। আমি জানি না আমার ছবিগুলো কেমন হবে বা এর পরেও আমায় আর কেউ কাজ করার সুযোগ দেবেন কি না। তাই আমাকে খুব সতর্ক থাকতে হয়। আমি অভিনয় করতে ভালবাসি। সেই কাজটাই করে যেতে চাই। কেরিয়ারের শুরুর দিকে বহুবার প্রত্যাখ্যানের মুখোমুখি হয়েছেন বলেও জানান দিশা। এমনকী, প্রথম যে ছবিতে কাজ করার সুযোগ পেয়েছিলেন, তাতেও কিছুদিন পরে তার জায়গায় অন্য নায়িকাকে নেন প্রযোজক। কিন্তু সমস্ত ঘটনা থেকেই শিক্ষা নিতে ভালবাসেন দিশা পাটানি। নিজের সম্পর্কে বলতে গিয়ে এ নায়িকা বলেন, মানুষ হিসেবে আমি খুব ইতিবাচক। আমি পড়াশোনা ছেড়ে মুম্বই চলে আসি। একজন কলেজ ছাত্রীর পক্ষে একটা অচেনা শহরে এসে মানিয়ে নেওয়া মোটেই সহজ নয়। আমি নিজে রোজগার করতাম এবং একাই থাকতাম। কোনো দিনও বাড়িতে টাকা চাইনি। আমি মুম্বইতে মাত্র ৫০০ টাকা নিয়ে এসেছিলাম। একটা সময়ে আমার কাছে কোনো টাকা ছিল না। এই স্ট্রাগলিং পিরিয়ডে দিশা বহু বিজ্ঞাপনের জন্য অডিশন দিতেন বলে জানিয়েছেন। তিনি জানতেন, কোনো কাজ না পেলে বাড়ির ভাড়াও দিতে পারবেন না। আমার জীবন ছিল কাজ করো, বাড়ি ফেরো আর ঘুমোও। দিশার মুখে উঠে এসেছে এই সব পুরনো দিনের কথা। ২০১৬-য় ‘এমএস ধোনি: দ্য আনটোল্ড স্টোরি’ ছবিতে দর্শকদের মুগ্ধ করেছিলেন দিশা পাটানি। সুশান্তের সঙ্গে তার রসায়ন পছন্দ হয়েছিল দর্শকদের। তখন থেকেই তাকে বলিউডের অন্যতম প্রতিশ্রুতিশীল অভিনেত্রী হিসেবে ভাবতে শুরু করে দেন সমালোচকরা। -ডেস্ক