(দিনাজপুর২৪.কম) ধানমন্ডির জিগাতলা এলাকায় শিক্ষার্থীদের বিক্ষোভে পুলিশ টিয়ার শেল ও লাটিচার্জ করেছে। ধানমন্ডি আওয়ামী লীগ কার্যালয়ের সামনে একটি মিছিল লক্ষ্য করে পুলিশ টিয়ার শেল নিক্ষেপ করে। আজ দুপুর একটায় এ ঘটনা ঘটে। এ সময় পুলিশের সঙ্গে বিক্ষোভকারীদের কয়েক দফা ধাওয়া পাল্টা ধাওয়ার ঘটনাও ঘটেছে। এ ঘটনায় ধানমন্ডির ৩/এ-তে অবস্থিত সভানেত্রীর কার্যালয়ের চারপাশ ঘিরে উত্তেজনা বিরাজ করছে। আওয়ামী লীগ নেতাকর্মীদের দাবি কার্যালয়ের দিকে আসা মিছিলটি ছিল ছাত্রদলের।

পুলিশের নিক্ষেপিত টিয়ারশেলে অত্র এলাকায় অবস্থান নেয়া আওয়ামী লীগের নেতাকর্মীরাও আক্রান্ত হন। তাদের আগুন জ্বালিয়ে টিয়ারশেল থেকে বাঁচার চেষ্টা করতে দেখা গেছে এ সময়।
সকাল থেকেই ধানমন্ডি আওয়ামী লীগ অফিসে বিপুল সংখ্যক নেতাকর্মীদের ভিড় লক্ষ্য করা গেছে। গতকাল দিনভর জিগাতলা এলাকার সংঘর্ষ ও আওয়ামী লীগ সভানেত্রীর রাজনৈতিক কার্যালয়ে ঢিল ছুড়ে মারার ঘটনায় বাড়তি সতর্কতার জন্যই এ উপস্থিতি। তবে এই সতর্কতায় দুপুর থেকেই উত্তেজনা বিরাজ করছে। নেতাকর্মীদের মধ্যে জোড় আলাচনা বিশ্ববিদ্যালয় এলাকা থেকে শিক্ষার্থীরা মিছিল নিয়ে হামলা চালাতে পারে। এমন গুজবে ধানমন্ডির ৩/এ-তে ভিড় বাড়ছে। কার্যালয় ঘিরে আওয়ামী লীগ, যুবলীগ ও ছাত্রলীগের বিপুল সংখ্যক নেতকর্মীরা জমায়েত হয়েছে। কার্যালয়ের ভেতরে সাংগঠনিক সম্পাদক জাহাঙ্গীর কবির নানক, খালিদ মাহমুদ, যুগ্ম সাধারণ সম্পাদক আব্দুর রহমান, দপ্তর সম্পাদক আব্দুস সোবহান গোলাপসহ বেশকজন কেন্দ্রীয় নেতা উপস্থিত থেকে টেলিভিশনে পরিস্থিতি পর্যবেক্ষণ করছেন। -ডেস্ক