(দিনাজপুর২৪.কম) নিজের ও পরিবার-পরিজনের জীবনের নিরাপত্তা দাবিতে জামালপুর প্রেসক্লাবের সভাপতি হাফিজ রায়হান সাদা ও সাধারণ সম্পাদক লুৎফর রহমানসহ ৩১ জন কর্মরত সাংবাদিক পৃথক পৃথক সাধারণ ডায়েরি (জিডি) করেছেন।

শনিবার রাত সাড়ে ১০টার দিকে জামালপুর সদর থানায় এসব জিডি দায়ের করা হয়েছে। সদর থানায় ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা তাৎক্ষণিক জিডি গ্রহণ করে প্রয়োজনীয় আইনগত ব্যবস্থা গ্রহণের আশ^াস দিয়েছেন।

সাংবাদিকরা তাদের জিডিতে অভিযোগ করে বলেছেন, গত মঙ্গলবার দুপুরে জামালপুর সদর সাব-রেজিস্ট্রার কার্যালয় প্রাঙ্গণে জাল কাগজপত্রের মাধ্যমে জমির দলিল নিবন্ধনের তথ্য সংগ্রহ করতে গিয়ে দলিল লেখক হাবিবুর রহমানের চেম্বারে কথা বলার সময় সাংবাদিক মোস্তফা মনজুরের ওপর সন্ত্রাসী হামলা হয়। ওই হামলার প্রতিবাদে ও হামলাকারীদের শাস্তির দাবিতে জামালপুরে কর্মরত সাংবাদিকরা আন্দোলন অব্যাহত রেখেছে।

নির্যাতনের শিকার সাংবাদিক মোস্তফা মনজু বাদী হয়ে তার ওপর হামলার মূলহোতা স্ট্যাম্পভেন্ডার ও জামালপুর পৌরসভার কাউন্সিলর হাসানুজ্জামান খান রুনুসহ নয়জনকে আসামি করে জামালপুর সদর থানায় একটি মামলা দায়ের করেন।

দু’দিনের মাথায় মামলাটির আসামিরা গত বৃহস্পতিবার আদালত থেকে জামিন নিয়ে সাংবাদিক মোস্তফা মনজুসহ আন্দোলনরত জামালপুর প্রেসক্লাবের সাংবাদিক নেতৃবৃন্দ ও অন্যান্য সকল সাংবাদিকদের প্রাণনাশের হুমকি দিয়ে আসছেন। এ ধরনের হুমকিতে সাংবাদিক মোস্তফা মনজুসহ জেলায় কর্মরত সাংবাদিকরা জীবনের নিরাপত্তাহীনতায় ভুগছেন এবং পরিবার পরিজন নিয়ে চরম উদ্বেগ ও উৎকণ্ঠায় রয়েছেন।

জামালপুর প্রেসক্লাবের সভাপতি হাফিজ রায়হান সাদা ও সাধারণ সম্পাদক লুৎফর রহমান বলেন, মোস্তফা মনজুর ওপর হামলাকারী সন্ত্রাসীদের হুমকির কারণে তিনিসহ আন্দোলনরত সাংবাদিকরা তাদের পরিবার পরিজন নিয়ে জীবনের চরম নিরাপত্তাহীনতায় ভুগছেন। তাই থানায় গণজিডি দায়ের করে সাংবাদিকদের জীবনের নিরাপত্তা চাওয়া হয়েছে। একই সাথে হুমকিদাতা হাসানুজ্জামান খান রুনু ও তার সহযোগীদের দ্রুত আইনের আওতায় এনে দৃষ্টান্তমূলক শাস্তির দাবি জানিয়েছি। অন্যথায় সাংবাদিক নির্যাতনের প্রতিবাদে বৃহত্তর সমাবেশসহ আন্দোলন আরো জোরদার করা হবে।’

এদিকে সাংবাদিকদের নিরাপত্তা নিশ্চিত করতে প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার হস্তক্ষেপ কামনা করেছেন জামালপুর প্রেসক্লাবের সাধারণ সম্পাদক লুৎফর রহমান।

প্রসঙ্গত, পেশাগত দায়িত্বপালন কালে সাংবাদিক নির্যাতনের ঘটনায় জামালপুর জেলায় কর্মরত সাংবাদিকদের মাঝে চরম ক্ষোভ বিরাজ করছে। এ ঘটনার প্রতিবাদে গত বৃহস্পতিবার জামালপুর শহরের দয়াময়ী মোড়ে সর্বস্তরের সাংবাদিক ও সুধীবৃন্দ মানববন্ধন এবং পরের দিন শুক্রবার সকালে জামালপুর প্রেসক্লাব মিলনায়তনে সাংবাদিকদের প্রতিবাদ সমাবেশ থেকে সাংবাদিক নির্যাতনের ঘটনায় তীব্র নিন্দা ও প্রতিবাদ জানানো হয়। -ডেস্ক