(দিনাজপুর ২৪.কম) আগামী ভবিষ্যৎ প্রজন্মকে মুক্তিযুদ্ধের চেতনায় ও বঙ্গবন্ধুর আদর্শের সৈনিক হিসেবে গড়ে তুলতে পারলে জাতি উপকৃত হবে। ৭৫ এর ১৫ আগস্ট স্বাধীনতা বিরোধীরা বঙ্গবন্ধুকে স্ব-পরিবারে হত্যার পর থেকে বাংলাদেশের গৌরবময় ইতিহাসকে বারবার বিকৃত করা হয়েছে। বাংলাদেশের সঠিক ইতিহাস নতুন প্রজন্মের কাছে তুলে ধরতে সকলকে আন্তরিকভাবে কাজ করে যেতে হবে। আজ শুক্রবার সকালে জাতির জনক বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমানের ৪০তম শাহাদাৎ বার্ষিকী উপলক্ষে বঙ্গবন্ধু শিশু কিশোর মেলা রাঙ্গামাটি জেলা শাখার উদ্যোগে শিল্পকলা একাডেমীতে শিশু-কিশোরদের নিয়ে চিত্রাংকন প্রতিযোগিতা ও কবিতা আবৃত্তি প্রতিযোগীতার উদ্বোধন করতে গিয়ে  রাঙ্গামাটি জেলা আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক ও রাঙ্গামাটি জেলা বঙ্গবন্ধু শিশু-কিশোর মেলার প্রধান পৃষ্টপোষক হাজী মো. মুছা মাতব্বর এসব কথা বলেন।
বঙ্গবন্ধু শিশু কিশোর মেলা রাঙ্গামাটি জেলা শাখার সভাপতি মনসুর আহমেদ মান্নার সভাপতিত্বে অনুষ্ঠিত শিশু-কিশোরদের সাংস্কৃতিক প্রতিযোগীতার উদ্বোধনী অনুষ্ঠানে বিশেষ অতিথি উপস্থিত ছিলেন, রাঙ্গামাটি জেলা কৃষকলীগের সাধারণ সম্পাদক মো. জাহিদ আকতার,কেন্দ্রীয় যুবলীগের সহ-সম্পাদক মুজিবুর রহমান দীপু, রাঙ্গামাটি জেলা যুবলীগের সভাপতি মো. আকবর হোসেন চৌধুরী, সদর থানা যুবলীগের সাধারণ সম্পাদক নতুন কুমার ত্রিপুরা, কেন্দ্রীয় ছাত্রলীগের সদস্য মো. শাহনেওয়াজ সুমন, বঙ্গবন্ধু শিশু-কিশোর মেলা রাঙ্গামাটি জেলা শাখার সহ-সভাপতি কানু দাশ গুপ্ত, সাধারণ সম্পাদক সুদীপ দাশ, ভারপ্রাপ্ত সাধারণ সম্পাদক মো. শাহ এমরান রোকন, ত্রিপুরা কল্যাণ ফাউন্ডেশনের সাধারণ সম্পাদক ঝিনুক ত্রিপুরা, বঙ্গবন্ধু শিশু-কিশোর মেলা রাঙ্গামাটি কলেজ শাখার সভাপতি সুবল বিশ্বাস, জেলা সদস্য øেহাশীষ বড়–য়া সিন্টু, ৮নং ওয়ার্ড যুবলীগ সাধারণ সম্পাদক মো. নাছির উদ্দিন প্রমূখ।হাজী মো. মুছা মাতব্বর আরো বলেন, শিশুদের মাঝে বঙ্গবন্ধুর কথা ও দেশের সঠিক ইতিহাস তুলে ধরতে পারলে তারা জাতির পিতা বঙ্গবন্ধুর আদর্শকে বুকে লালন করে দেশকে ও দেশের মানুষকে ভালোবাসবে।
তিনি বলেন, বঙ্গবন্ধুর আদর্শ নীতি ও দেশের জন্য যে ভালোবাসা তা বাংলাদেশের মানচিত্র যতদিন থাকবে জনগণ ততদিন তা শ্রদ্ধার সাথে স্মরণ করবে। তিনি ১৫ আগস্ট ও ২১শে আগস্ট এ যারা শহীদ হয়েছে তাদের আত্মার শান্তি কামনা করনে। তিনি বলেন, বঙ্গবন্ধুর সুযোগ্য কন্যা প্রধানমন্ত্রী জননেত্রী শেখ হাসিনা বঙ্গবন্ধুর স্বপ্নের সোনার বাংলা বিনির্মাণে অক্লান্ত পরিশ্রম করে যাচ্ছেন। তার নেতৃত্বে দেশ আজ এগিয়ে যাচ্ছে। তিনি বলেন, বঙ্গবন্ধুর স্বপ্নের সোনার বাংলাদেশ গড়তে শেখ হাসিনার হাতকে আরো শক্তিশালী করতে সকলকে স্ব-স্ব অবস্থানে থেকে সহযোগীতা করার আহবান জানান। জাতীয় শোক দিবস উপলক্ষে ৪টি বিভাগে ৩শতাধিক শিশু-কিশোর সাংস্কৃতিক প্রতিযোগীতায় অংশগ্রহণ করে। আগামী ২৯ আগস্ট শোক দিবসের সমাপণী অনুষ্ঠানে রাঙ্গামাটি জেলা পরিষদ মিলনায়তনে কৃতিত্ব অর্জনকারী শিশু-কিশোরদের পুরস্কার প্রদান করা হবে।(ডেস্ক)