(দিনাজপুর২৪.কম) প্রয়াত জাতীয় নেতা এ এইচ এম (আবুল হাসনাত মোহাম্মদ) কামরুজ্জামানের স্ত্রী ও রাজশাহী সিটি করপোরেশনের সাবেক মেয়র এ এইচ এম খাইরুজ্জামান লিটনের মা জাহানারা জামানের (৭৯) শারীরিক অবস্থা কিছুটা উন্নতির দিকে। তিনি গত ৩ দিন ধরে বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিব মেডিকেল বিশ্ববিদ্যালয়ের এন্ডোক্রাইনোলজি বিভাগের অধীনে কেবিন ব্লকের ৩১২ নম্বর কক্ষে চিকিৎসাধীন রয়েছেন। মেডিসিন বিশেষজ্ঞ অধ্যাপক এবিএম আব্দুল্লাহ তার চিকিৎসা করছেন।মুজিবনগর অস্থায়ী বাংলাদেশ সরকারের মন্ত্রী ও আওয়ামী লীগের সভাপতির দায়িত্ব পালনকারী কামরুজ্জামান ১৯৫১ সালে জাহানারা জামানকে বিয়ে করেন। ১৯৭৫ সালের ৩ নভেম্বর ঢাকা কেন্দ্রীয় কারাগারে হত্যাকাণ্ডের শিকার হয়েছিলেন তিনি।বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিব মেডিকেল বিশ্ববিদ্যালয়ের এন্ডোক্রাইনোলজি বিভাগের সহকারী অধ্যাপক ডা. শাহজাদা সেলিম বলেন, জাতীয় চার নেতার একজন এ এইচ এম কামরুজ্জামানের স্ত্রী গত ৩ সপ্তাহ আগে নিউমোনিয়ার কারণে বারডেম হাসপাতালে ভর্তি হয়েছিলেন। এর আগেও তিনি ডায়াবেটিস, উচ্চ রক্তচাপসহ অন্য কিছু সমস্যায় ভুগছিলেন। হাসপাতালে ভর্তি হওয়ার পর তার অবস্থা আরেকটু খারাপ হয়। পরে তাকে আইসিইউতে ভর্তি করা হয়। অবস্থার কিছুটা উন্নতি হলে বিএসএমএমইউতে তাকে ভর্তি করা হয়। তার বিআইসি ও রক্তস্বল্পতাও আছে। এ সবের চিকিৎসা চলছে।তিনি আরও বলেন, বর্তমানে তার অবস্থা দ্রুত উন্নতি হচ্ছে। আশা করা যায়, ২-৩ দিনের মধ্যে অবস্থার আরও উন্নতি হবে।এদিকে বারডেম হাসপাতালে চিকিৎসাকালীন সময়েই তাকে দেখতে হাসপাতালে গিয়েছিলেন স্বাস্থ্যমন্ত্রী ও প্রয়াত জাতীয় নেতা মনসুর আলীর ছেলে মোহাম্মদ নাসিম। এ ছাড়াও রাজশাহীর স্থানীয় আওয়ামী লীগ ও অংগ সংগঠনের নেতাকর্মীদের জাহানারা জামানকে দেখতে হাসপাতালে আসতে দেখা গেছে।(ডেস্ক)