সুকুমার দাস বাবু- আটোয়ারী (দিনাজপুর২৪.কম)  পঞ্চগড়ের আটোয়ারী উপজেলার বার আউলিয়া ফুল তলা গ্রামের আব্দুল মালির মেয়ে(১৬) ঐ এলাকার মৃত: আশির উদ্দিনের ছেলে ধর্ষক ইসাহাক আলী(৬৫) গ্রেফতার হলেও ঐ কন্যার ৪মাসের অন্তসত্তা শিশু হত্যার আসামী কেউ গ্রেফতার হয়নি। অভিযোগ উঠেছে (২) আব্দুল হামিদ (৩) হেলাল, (৪) আব্দুল গনি, (৫) আইনুল হক, (৬) জাহেদুর হক শিশু হত্যার মূল আসামী পুলিশের নাকের ডোগায় ঘুরলেও পুলিশ আসামীদের ধরছে না। ০৬/০৮/২০১৫ইং তারিখে মামলা এনট্রি হয়। বেশ কয়েকদিন পর মুল ধর্ষক আসামীকে গ্রেফতার করেন। গ্রেফতার করার পর বেশ কয়েকদিন বাকি আসামীরা দৌড়ের উপর থাকেন।  কিন্তু মেয়ের বাবা আব্দুল মালেককে নানান ধরনের হুমকি-ধুমকি দিয়ে থাকে শিশু হত্যার আসামীরা। তারা বলেন তোমার বাড়িতে ফেন্সিডিল, গাজা আরো অনেক অবৈধ্য জিনিষ পত্র ঢুকিয়ে দেব মামলা তুলে না নিলে। এই নিয়ে আটোয়ারী থানায় সাধারন ডায়েরী করতে আসলে থানা ইনচার্জ আবেদনটি মঞ্জুর করেনি। দিন মজুর মেয়ের পরিবারকে এখনো নানা ভাবে হুমকি দিয়ে যাচ্ছে আসামীরা। লোক সমাজে শিশু হত্যার আসামীরা প্রকাশ করেন আমাদের কিছুই করতে পারবে না মেয়ের পরিবার। ১৪সেপ্টেম্বর/১৫ পুলিশ সুপার মোঃ গিয়াস উদ্দীন আহাম্মেদ মামলাটির তদন্তে আসলে জানতে পারেন মুল ঘটনা। মুল ঘটনা উদঘাটনের পরে ঐ নার্স সহ ৫ আসামীকে গ্রেফতার করার জন্য নির্দেশ দেন আটোয়ারী থানার কর্তৃপক্ষকে। আসামীরা প্রভাবশালী হওয়ায় তাদেরকে ধরতে গরিমশি করছে পুলিশ। গনমাধ্যম কর্মী মামলার আয়ো এসআই তাহেরকে মুঠোফনে কথা বললে তিনি বলেন ১নং আসামী ধরেছি বাকি আসামীগুলো ধরার চেষ্টায় আছি। মেয়ের পরিবার সূত্রে জানাযায় শিশু হত্যার আসামীরা প্রভাবশালীদের মাধ্যমে মামলার জামিন পেয়ে যাচ্ছেন এবং চার্জসিট তাদের পক্ষে দিবেন পুলিশ। এদিকে মেয়ের বাবা আব্দুল মালেকের টাকা পয়সা না থাকায় কোথাও  কোন ধরনের যোগাযোগ করতে পারছে না। এই নিয়ে বিপাকে পড়েছে মেয়ের পরিবার।