(দিনাজপুর২৪.কম) নীলফামারীর জলঢাকা পাইলট বালিকা উচ্চ বিদ্যালয়ের সপ্তম শ্রেণির এক ছাত্রীকে যৌন নির্যাতনের  মামলায় ঐ স্কুলের (ভারপ্রাপ্ত) প্রধান শিক্ষককে গ্রেপ্তার করে জেল হাজতে পাঠিয়েছে থানা পুলিশ।
মামলা সূত্রে জানা যায়, দীর্ঘ দিন ধরে জলঢাকা পাইলট বালিকা উচ্চ বিদ্যালয়ের (ভারপ্রাপ্ত) প্রধান শিক্ষক এ.কে.এম ওয়ারেজ আলী  সপ্তম শ্রেণির ছাত্রীকে (১৩) বিভিন্ন সময়ে কু-প্রস্তাব দিয়ে মোবাইলে অনেক অশালীন কথাবার্তা বলতেন। গত ৬ই সেপ্টেম্বর উপবৃত্তির টাকা দেয়ার কথা বলে ঐ ছাত্রীকে ফোন করে স্কুলে ডেকে নিয়ে আসেন সেই শিক্ষক।

এসময় স্কুলে কোন ছাত্রী শিক্ষক না থাকার সুযোগে ঐ ছাত্রীকে একা পেয়ে যৌন নির্যাতনের চেষ্টা চালায়। এ ঘটনায় নির্যাতিত ছাত্রীর নানী  আলেয়া বেওয়া বাদী হয়ে গতকাল শনিবার দুপুরে একটি অভিযোগ দায়ের করেন। অভিযোগের প্রেক্ষিতে বিকেলে ঐ শিক্ষককে স্কুল থেকে গ্রেপ্তার করে পুলিশ।  থানা অফিসার ইনচার্জ মোস্তাফিজার রহমান জানান, সুনির্দিষ্ট অভিযোগের ভিত্তিতে ঐ শিক্ষককে গ্রেপ্তার করে জেল হাজতে প্রেরণ করা হয়েছে। -ডেস্ক