চীনে করোনাভাইরাসের প্রাদুর্ভাবের মাঝেই বার্ড ফ্লুর বিস্তারের খবর পাওয়া গেছে - ছবি : সংগৃহীত

(দিনাজপুর২৪.কম) নভেল করোনাভাইরাসের ব্যাপক প্রাদুর্ভাব মোকাবেলায় জেরবার চীনে এবার বার্ড ফ্লু ছড়িয়ে পড়ার খবর পাওয়া গেছে। দেশটির দক্ষিণাঞ্চলীয় প্রদেশ হুনানে একটি খামারে দ্রুত ছড়াতে সক্ষম এমন ধরনের এইচ৫এন১-এর ছড়িয়ে পড়েছে বলে কৃষি মন্ত্রণালয় জানিয়েছে। খবর রয়টার্সের।

প্রায় আট হাজার মুরগির একটি খামারে এই ভাইরাস পাওয়া গেছে। এতে আক্রান্ত হয়ে এর মধ্যে অর্ধেকের বেশি মুরগি মারা গেছে। এজন্য চীন এ পর্যন্ত ১৭ হাজার ৮২৮টি মুরগি মেরে ফেলেছে বলে চ্যানেল নিউজ এশিয়ার খবরে বলা হয়েছে।

এর আগে এ মাসের প্রথম দিকে এই বার্ড ফ্লু ভাইরাসে সংক্রমিত মুরগি ও ডিম ধ্বংস করা শুরু করে ভারত।

এইচ৫এন৮ নামে ভিন্ন এক ধরনের ভাইরাস সাম্প্রতিক সপ্তাহগুলোতে ইউরোপের পূর্বাঞ্চলে ছড়িয়ে পড়েছে। ২০১৩ সালে চীনে বার্ড ফ্লু ছড়িয়ে পড়ার কারণে দেশটি ৬৫০ কোটি ডলারের অর্থনৈতিক ক্ষতি হয় বলে জাতিসঙ্ঘের বিশেষজ্ঞদের মত।

এইচ৫এন১ ভাইরাস কেবল চীনেই নয়, ভারতেও ছড়ানোর খবর মিলেছে। গত বুধবার (২৯ জানুয়ারি) বিশ্ব প্রাণি স্বাস্থ্য সংস্থার (ওআইই) পক্ষ থেকে জানানো হয়, ছত্তিশগড়ের একটি পোল্ট্রি ফার্মে এ ভাইরাসজনিত বার্ড ফ্লু আক্রমণ করলে ২১ হাজার ৬০টি মুরগির মধ্যে ৫ হাজার ৬৩৪টি মারা যায়। পরে বাকিগুলোকে নিধন করা হয়।

সর্বশেষ প্রাদুর্ভাবটি এমন এক সময়ে এলো যখন চীন ঝাঁপিয়ে পডছে নতুন করোনাভাইরাস মোকাবেলায়, যা হুবেই প্রদেশের উহান শহর থেকে বিশ্বজুড়ে ছড়িয়ে পড়েছে। এই ভাইরাসে সংক্রমিত হয়ে তিন শতাধিক মানুষের মৃত্যু হয়েছে, আক্রান্ত হয়েছে ১৪ হাজারেরও বেশি মানুষ। পরিস্থিতি মোকাবেলায় স্থানীয় প্রশাসন দ্রুত তৎপর না হওয়ায় শুক্রবার উহানের কমিউনিস্ট পার্টির নেতারা দুঃখ প্রকাশ করেছেন।

এই প্রাদুর্ভাবকে বিশ্ব স্বাস্থ্য সংস্থা (ডব্লিউএইচও) ‘বৈশ্বিক জরুরি স্বাস্থ্য পরিস্থিতি’ হিসাবে ঘোষণা করলেও আন্তর্জাতিক বাণিজ্যে বা ভ্রমণে নিষেধাজ্ঞার সুপারিশ করেনি।

অন্যদিকে, মানুষ থেকে মানুষে সংক্রমণের এ ভাইরাস ঠেকাতে চীন ভ্রমণে কড়াকড়ি আরোপ করেছে যুক্তরাষ্ট্র, অস্ট্রেলিয়া এবং জাপান। ফিলিপাইনসহ অনেক দেশই এই ভাইরাসের প্রকোপ ঠেকাতে চীন থেকে আগতদের অন-অ্যারাইভাল ভিসা বন্ধ করে দিয়েছে। অনেক দেশের এয়ারলাইন্স চীনগামী ফ্লাইটও বন্ধ করে দিয়েছে। করোনাভাইরাসের কারণে বিশ্ব থেকে এক প্রকার বিচ্ছিন্ন হয়ে পড়েছে চীন। -ডেস্ক