আবু ছইদ, ডোমার, (দিনাজপুর২৪.কম) নীলফামারী জেলার ডোমার উপজেলার চিলাহাটি একটি ঐতিহ্যবাহি হাট ও বাজার। চিলাহটি নীলফামারী জেলার শেষ প্রান্তে অবস্থিত। এই চিলহাটি পার্শ্ববর্তী আর একটি বিক্ষাত হাট ও বাজার পঞ্চগড় জেলা ভাউলাগঞ্জ হাট। চিলাহাটি হইতে ভউলাগঞ্চের দূরত্ব ০৭ কিলোমিটার এবং রাস্তাটি পাকা। কিন্তু ০৭ কিলোমিটার  রাস্তার মাঝে পথে একটি ব্রিজের অভাবে এই দুই জেলার মাসুষকে প্রায় ৪২ কিলোমিটার পথ ঘুরে যাতায়ত করতে হচ্ছে। জানাযায়, ভাউলাগঞ্জ একটি এই এলাকার গুরুত্ব পূর্ন বড় হাট আবার চিলাহাটিও মানধাত্তার আমল থেকে একটি বড় ব্যবসা কেন্দ্র। চিলাহাটি হইতে ভাউলাগঞ্জে যাতায়াত ব্যবস্থা খারাপ হওয়ার কারনে আজ চিলাহাটি অনেক পিছিয়ে। চিলাহাটি বাজারের কয়েকজন ব্যবসায়ি জানান, গত প্রায় ১০ বছর পূর্বে ভাউলাগঞ্জ হাট চলত চিলাহাটির ব্যাবসায়িদের নিয়ে। এমনকি চিলাহাটি থেকে নীলফামারীর দুরত্ব এবং পঞ্চগড়ের দূরত্ব প্রায় ১০ কিলোমিটার কম হওয়ায়। এই চিলাহাটি অঞ্চলের মানুষ পঞ্চগড় যাতায়াত করতো বেশী। কিন্তু ব্রিটিশ আমলের লোহার ব্রিজটি ধ্বংসে পরিণত হওয়ায় এই অঞ্চলের মাসুষ ০৭ কিলোমিটার যেতে ৪০ কিলোমিটার পথ পারি দিতে হচ্ছে। এলাকাবাসী সূত্রে এবং সংবাদদাতা এলাকা ঘুরে জানা গেছে পঞ্চগড় জেলার বেশ কিছু অঞ্চলের মানুষ চিলাাহাটি হয়ে দেশের বিভিন্ন স্থানে যাতায়াত করে। এলাকাবাসী জানান, চিলহাটি হইতে ট্রেন চলাচল করার কারণে পঞ্চগড়ের মানুষ চিলাহাটি  এসে ট্রেনে করে দেশের বিভিন্ন স্থানে যাতায়াত করে। চিলাহাটির গোসাইগঞ্জ, মুক্তিরহাট, বিওপি বাজার সহ পাশ্ববর্তী ইউনিয়ন কেতকীবাড়ীর কৃষকরা তাদের কৃষিপন্য ভাউলাগঞ্জ হাটে নিয়ে বিক্রি করে। গত ১০ বছর পূর্বে সড়ক ব্যবস্থা ভালো না থাকায় দেশের বিভিন্ন স্থান থেকে ভাউলাগঞ্জ আসা পাইকাররা চিলাহাটি থেকেও ট্রাকে করে কৃষি পন্য সহ ইত্যাদি মালামাল নিয়ে যেতেন। কিন্তু আজ ব্রিজটির দুরাবস্থার কারনে সেই সমস্থ পাইকারী ব্যবসায়িরা চিলাহাটিতে আসতে পারেন না। কৃষকগন জানান একারণে তারা উচিৎ মুল্য পাচ্ছে না। এছাড়াও সাধারণ কোন কারনে যদি ভাউলাগঞ্চ সহ টুনির হাট, চাকলা, বোদা, পঞ্চগড় যেতে হয় তাহলে অতিরিক্ত ৪০ কিলোমিটার পথ বেশী অতিক্রম করতে হয়। ভ্যান ওয়ালাদের সাথে কথা বললে তারা জানান ১০-১৫ বছর ধরেই এই ব্রিজটি ভাঙ্গা। এ অবস্থায় মালামাল আনা নেওয়া করলে মালামাল ভ্যান থেকে নামাতে হয় এবং মাথায় করে ব্রিজ পার করে আবার ভ্যনে তুলে নিয়ে এভাবে যাতায়াত করতে হয়।