আসলাম আলী আঙ্গুর (দিনাজপুর২৪.কম) দিনাজপুরের চিরিরবন্দরে মডেল সরকারী প্রাথমিক বিদ্যালয়ের ২য় শ্রেণীর ছাত্রীকে অমানুষিক নির্যাতন করেছে বলে মেয়ের বাবা মেয়ের নির্যাতনের বিচার চেয়ে চিরিরবন্দর উপজেলা প্রাথমিক শিক্ষা অফিসে ২১/০৩/২০১৬ইং  লিখিত অভিযোগ করছে বলে জানা গেছে। এই ঘটনাটি ঘটেছে, চিরিরবন্দর উপজেলার মডেল সরকারী প্রাথমিক বিদ্যালয়ের সহকারী শিক্ষকের অমানুষিক ও শারীরিক নির্যাতনে সোনালী (হরিজন) নামের ছাত্রী অসুস্থ্য হয়। সে আব্দুলপুর ইউনিয়নের চিরিরবন্দর গ্রামের শ্রী সোহেল হরিজনের মেয়ে বলে জানা যায়। ঐ স্কুলের ২য় শ্রেণীর ছাত্রী। অভিযোগ সুত্রে জানা গেছে, স্কুল চলাকালিন সময়ে প্রধান শিক্ষক সহ অন্যান্য শিক্ষকেরা আমার মেয়ে হরিজন হওয়ার কারনে অন্য দৃষ্টিতে দেখে ও বিভিন্ন ভাবে বকাবকি করে। গত সোমবার ঘটনার দিন ১১ঘটিকায় স্কুল চলাকালিন ২য় ক্লাশের সময় আকরাম (মাস্টার)  নিজ ক্লাশের সময় আমার মেয়ে সোনালী (হরিজন) কে অমানুষিক ভাবে মারধর করে। নির্যাতনে আমার বাচ্চা অসুস্থ্য হলে পার্শ্বের ছাত্র/ছাত্রী আমার বাড়ীতে খবর দেয়। খবর পেয়ে আমার মা স্কুলে এসে অসুস্থ্য অবস্থায় সোনালী কে উদ্ধার করে প্রাথমিক  চিকিৎসার জন্য উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্স চিকিৎসা করেন। এ ব্যাপারে স্কুলের প্রধান শিক্ষক মোঃ আরিফুল ইসলাম ঘটনাটির সত্যতা শিকার করেন। এ ব্যাপারে উপজেলা প্রাথমিক সহকারী শিক্ষা অফিসার আরিফুল রহমান খান জানান, বিষয়টি জানতে পেরেছি তবে অভিযোগ পেলে তদন্ত করে দেখা হবে । এ ব্যাপারে উপজেলা প্রাথমিক শিক্ষা অফিসার মোঃ জাকিরুল হাসানের সঙ্গে কথা হলে তিনি জানান লিখিত অভিযোগ পেয়েছি । তদন্ত করার জন্য সহকারী শিক্ষা অফিসার আরিফুল রহমান খান, কে তদন্তের জন্য দেওয়া হয়েছে। ঘটনার সত্যতা  পেলে আইনগত ব্যবস্থা গ্রহন করা হবে। এলাকার সচেতন মহলের দাবী শিক্ষকের দৃষ্টান্তমূলক শান্তি দাবি করেন। পাশাপাশি কর্তৃপক্ষের হস্তক্ষেপ কামনা করেন।